১৯শে জুলাই, ২০১৮ ইং, ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
ads here

প্রত্যাশার চাপ নয়, দিকনির্দেশনা দিন সন্তানকে

সোমবার, ০৮/০৬/২০১৫ @ ৪:৪৮ পূর্বাহ্ণ

Spread the love

ইচ্ছেঘুড়ি ডেক্স,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম

index

নিউজফিডে একটা পোস্ট খুব শেয়ার হচ্ছিল; এস এস সি পরীক্ষায় বাবা-মায়ের প্রত্যাশানুযায়ী ফলাফল করতে না পেরে অভিমানে আত্মহত্যা করে ফেলা একটি ছেলের সুইসাইড নোটের কিছু ছবি। এড়িয়েই হয়ত যেতাম। কিন্তু না! বিষয়টা ভাবিয়ে তুলল। জীবনের প্রতি কতটা ক্ষোভ আর অসন্তোষ থাকলে কেউ এ বয়সে আত্মহননকে সব যন্ত্রণার সমাধান বলে ভেবে নিতে পারে? জীবনের মূল্য এত কম এই ছেলে-মেয়েগুলোর কাছে? নাকি এর দায় খানিকটা বাবা-মায়ের কাঁধেও বর্তায়?

বয়ঃসন্ধিকালে কিশোর বয়সি ছেলেমেয়েদের মনস্তত্ত্ব বড়রা কেউ বোঝে না, অথচ তারা সবাই-ই কিন্তু সে বয়সটাকে পার করেই আসে! তাহলে প্যারেন্টিং এর কোন জায়গাটিতে ভুল থেকে যায়? অতিরিক্ত প্রত্যাশা? ত্রুটিপূর্ণ শিক্ষাব্যবস্থা? প্রতিযোগিতা আর শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ? কিছু কথা বলার আছে এখানে আমার।

শিক্ষাব্যবস্থা আমাদের যেমনটাই হোক না কেন, বাবা-মা’দের একটি কথা মাথায় রাখতে হবে যে, “পড়াশোনা কখনই কোন প্রতিযোগিতা নয়”। পড়াশোনা হবে পরম আনন্দের আর ভালোবাসার। সেখানে প্রতিযোগিতা কেন আসতে যাবে? প্রতিযোগিতা হতে পারে জীবনযুদ্ধে জয়ী হবার জন্য। কতটা আত্মউন্নয়ন জীবনে ঘটানো গেল, প্রতিযোগিতা হতে পারে সেটা নিয়ে। আর জীবনযুদ্ধের জয়তো কখনও কোন গ্রেড পয়েন্টে মাপা যায় না। তাহলে কেন শুধু শুধু সন্তানকে তথাকথিত ভালো ফলাফলের প্রত্যাশায় একটা অসুস্থ প্রতিযোগিতার মুখে ঠেলে দিচ্ছেন? মানছি যে যুগের চাহিদা এখন এরকমই। কিন্তু একটা-দু’টো পাবলিক পরীক্ষায় খুব ভালো রেজাল্ট করে ফেলাটাইতো শেষ কথা নয়! জীবনের আরও অনেক অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় থাকে। ভালো ফলাফল বা প্রত্যাশিত ফলাফলের আশায় প্রতিযোগিতায় আটকে থাকতে থাকতে যে সেই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোর প্রস্তুতি নেয়ার কথা ভুলেই যাচ্ছেন, তা কি খেয়াল করেছেন কখনও?

rtmnews24.com

একটা সময়ে আমাদের সমাজে ‘লেখাপড়া করে ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ার না হলে জীবনটাই বৃথা’ এটা প্রায় প্রতিষ্ঠিতই ছিল। কিন্তু দিন বদলেছেতো। এখনতো কাজের প্রচুর ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে। আর সেসব ক্ষেত্রে কাজ করে মানুষ সফলও হচ্ছে! তাহলে কেন ছাঁচে আবদ্ধ হয়ে পথচলা? নিজেদের প্রত্যাশার ঝাঁপি সন্তানের উপর চাপিয়ে না দিয়ে বরং তাকে তার প্যাশন খুঁজে পেতে সাহায্য করুন না! প্যাশনটাকে কাজে লাগিয়ে জীবনে কী করে সফল হওয়া যায়, তার প্রস্তুতি তাকে নিতে দিন। বন্ধু হয়ে পাশে থেকে, পিঠ চাপড়ে তাকে বোঝান জীবনের প্ল্যান থাকতে হয় অনেক রকমের। প্ল্যান এ-তে ব্যর্থ হলে প্ল্যান বি নিয়ে কাজ করতে হবে। প্ল্যান বি-তে না হলে প্ল্যান সি, প্ল্যান ডি এমনকি প্ল্যান জেড পর্যন্ত তৈরি করে রাখতে হবে! এটাইতো জীবনের প্র্যাক্টিক্যাল দিক! মুষড়ে পড়ারতো কোন কারণ নেই। প্রত্যেকটি মানুষের জীবনেই কিছু ধাপ আসে, যেখানে হতাশা আর ক্ষোভ ছাড়া আর কিছুই থাকে না। কিন্তু সেগুলোকে পা দিয়ে মাড়িয়ে সামনেতো এগিয়ে যেতে হয় সমস্ত শক্তি নিয়ে! সে শক্তি মা-বাবারা ছাড়া আর কে দিতে পারে, বলুন তো? তা না করে সন্তানকে তার ব্যর্থতা নিয়ে বারবার খুঁচিয়ে তুলে কি কোন লাভ হবে? বোঝার বয়স থেকে তাকে জীবনের প্র্যাক্টিক্যাল বিষয়গুলো বুঝিয়ে দিন না। জীবন কত মূল্যবান আর জীবনকে এত মূল্যবান করে তুলতে বাবা-মায়ের কতটা ত্যাগ স্বীকার করতে হয়, সেটুকুও তাকে বুঝতে দিন। ব্যর্থতাকে বারবার সামনে তুলে এনে কেন তাকে কষ্ট দেবেন? গুছিয়ে নিয়ে সামনে যাওয়ার শক্তিটুকু তাকে এনে দিন। আখেরে মিষ্টি ফল নিশ্চয়ই পাবেন। আমাদের প্রত্যেকের জীবনের ডিজাইন আলাদা আলাদা, জীবনের পরিকল্পনা আলাদা আলাদা। সে পরিকল্পনায় যেন কোন খুঁত না থেকে যায়, সেদিকে মনোনিবেশ করুন। প্রতিযোগিতায় ঠেলে দিয়ে আর প্রত্যাশার ভার চাপিয়ে দিয়ে সন্তানের সুন্দর ভবিষ্যত আপনি আশা করতে পারেন না। এভাবে কি পারিবারিক সুস্থতা বজায় রাখতে পারা সম্ভব?

দু’-চারটে পাবলিক পরীক্ষায় সোনালি-রূপালি ফলাফল করে কী লাভ, যদি আপনার সন্তান জীবনযুদ্ধেই ফেইল করে বসে? কাজেই সন্তানের সুস্থ ভবিষ্যত পরিকল্পনার দিকে মন দিন আর তাকে সবদিক থেকে প্রস্তুতি নিতে সাহায্য করুন। প্রতিযোগিতা ‘জিপিএ ফাইভ’ এর নয়, প্রতিযোগিতা করুন জীবন গঠনের। ব্যর্থতা কিংবা অভিমানে জীবনটাকেই শেষ করে দেয়াটা কতখানি নির্বুদ্ধিতা, তাও তাকে বুঝতে দিন। দায়িত্বশীল আচরণ করে সন্তানকেও দায়িত্বশীল হতে শেখান। হ্যাপি প্যারেন্টিং।

লিখেছেনঃ নুজহাত ফারহানা

লাইফ স্টাইল ডেস্ক,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম ঢাকা:সব ভালোবাসাই বিয়ে অব্দি গড়ায় না। নানা কারণে ব্রেক আপ হয়ে যায়
লাইফ স্টাইল ডেস্ক,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম ঢাকা: জীবনকে সজীব রাখতে সবুজের স্পর্শে থাকতে হয়, সে যেন ভুলেই গেছি
লাইফ স্টাইল ডেস্ক,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম ঢাকা: গোসল করা প্রত্যেকটি মানুষের শারিরীক ও মানসিক সুস্থতার জন্যে অত্যাবশ্যক। তবে আপনি
লাইফ স্টাইল ডেস্ক,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম ঢাকা: আমরা সকলেই জানি সকল মানুষ একই ধরণের হন না। একেকজন মানুষের ব্যক্তিত্ব
লাইফ স্টাইল ডেস্ক,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম ঢাকা: হৃদপিন্ডের রক্তনালীতে চর্বি জমে বা রক্ত জমাট বেঁধে রক্ত চলাচল একেবারে বন্ধ

লাইফ স্টাইল ডেস্ক,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম ঢাকা:সব ভালোবাসাই বিয়ে অব্দি গড়ায় না। নানা কারণে ব্রেক আপ হয়ে যায়
লাইফ স্টাইল ডেস্ক,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম ঢাকা: জীবনকে সজীব রাখতে সবুজের স্পর্শে থাকতে হয়, সে যেন ভুলেই গেছি
লাইফ স্টাইল ডেস্ক,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম ঢাকা: গোসল করা প্রত্যেকটি মানুষের শারিরীক ও মানসিক সুস্থতার জন্যে অত্যাবশ্যক। তবে আপনি
লাইফ স্টাইল ডেস্ক,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম ঢাকা: আমরা সকলেই জানি সকল মানুষ একই ধরণের হন না। একেকজন মানুষের ব্যক্তিত্ব
লাইফ স্টাইল ডেস্ক,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম ঢাকা: হৃদপিন্ডের রক্তনালীতে চর্বি জমে বা রক্ত জমাট বেঁধে রক্ত চলাচল একেবারে বন্ধ