২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
head banar

“সরকারের এমন অমানবিক আচরণ” ভাবতেও কষ্ট হচ্ছে”

Wednesday, 13/09/2017 @ 4:18 pm

আরটিএমনিউজ২৪ডটকম, কক্সবাজারঃ সরকার এমন অমানবিক  আচরণ করবে তাহা ভাবতেও কষ্ট হচ্ছে” বললেন কক্সবাজার জেলার এক নেতা ।

ঢাকা থেকে কেন্দ্রীয় নেতারা আসবেন পরে ত্রাণ বিতরণে যাবেন, এমন উৎসাহ-উদ্দীপনায় বেশ কদিন আগে থেকে ত্রাণ কর্মে নিয়োজিত ছিল জেলার একদল নেতা-কর্মী ।

কিন্তু পুলিশের এমন আচরণে হতাশা ও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার পাশাপাশি অনেক কর্মীকে কাঁদতে দেখা গেছে।

অন্যদিকে তুমুল সমালোচনার ঝড় উঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যামে ।

 

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর  বর্বর  নির্যাতন ও গণহত্যা থেকে বাঁচতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের জন্য নেওয়া বিএনপির ত্রাণবাহী ২২টি ট্রাক এখন কক্সবাজার জেলা পুলিশের হেফাজতে ।

জেলা বিএনপির এক নেতা সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, উখিয়া-টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণে অংশ নিতে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসের নেতৃতে উচ্চপর্যায়ের একটি প্রতিনিধিদল কক্সবাজারে পৌঁছে। রাতভর ২২ টি ট্রাকে ত্রাণ সামগ্রি ভরে বিএনপি নেতাকর্মীরা।

 

আজ বুধবার সকাল থেকে ২২টি ত্রাণবাহী ট্রাক শহীদ মিনার রোডের বিএনপি কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেয়। এর পর সকাল ১১ টার দিকে পুলিশের একটি দল ২২ টি ট্রাকের চাবি জব্দ করে।

FB_IMG_1505295890134

এইদিকে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম জানান, দুপুরে ২২টি ত্রাণবাহী ট্রাক কক্সবাজার জেলা বিএনপির কার্যালয় থেকে বের হওয়ার সময় পুলিশ আটকে দেয়। এখন পুলিশি বাধার মুখে ট্রাকগুলো বিএনপি কার্যালয়েই আছে।

জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক ইউসুফ বদরী জানান, পুলিশ জানিয়েছে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া ত্রাণবাহী গাড়ি কোথাও যেতে পারবে না।

কক্সবাজার সদরের এক নেতা জানান, সরকারের আচরণ এমন অমানবিক হবে তাহা ভাবতেও কষ্ট হচ্ছে  ।

ক/১৩৯১৭

 

এই পাতার আরো সংবাদ
bg1
bg1
top-banner
bg1