২৪শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
head banar ads here

সরাসরি সম্প্রচার হয়নি খালেদার বক্তব্য

রবিবার, ১২/১১/২০১৭ @ ৯:০০ অপরাহ্ণ

Spread the love

untitled-1-jpg-ed-92892

আরটিএমনিউজ২৪ডটকম, নিউজ ডেস্ক: রাজধানীতে বড় রাজনৈতিক দলের সমাবেশের দলীয় প্রধানের বক্তব্য সম্প্রচার করলেও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপির সমাবেশ সরাসরি সম্প্রচার করেনি বেসরকারি টেলিভিশনগুলো। এমনকি ভাষণ ফেসবুকেও সরাসরি সম্প্রচার বন্ধ ছিল।

সরাসরি সম্প্রচার না হলেও এই সমাবেশের সংবাদ সংগ্রহ করেছে সব কয়েকটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল। কোনো কোনো চ্যানেলের একাধিক টিম কাজ করেছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও আশেপাশের এলাকায়।

বিএনপির অভিযোগ, সরকারের নির্দেশেই এমনটি হয়েছে। তবে নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ বিটিআরসি জানিয়েছে, এই জনসভার সম্প্রচার নিয়ে তাদের পক্ষ থেকে কোনো নির্দেশনা ছিল না।

রবিবার বেলা দুইটার দিকে শুরু হয় বিএনপির সমাবেশ। এতে বক্তব্য রাখেন দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তিনি দীর্ঘ বক্তব্যে সরকারের বিরুদ্ধে সমাবেশে বাধা দেয়ার অভিযোগ এনে বলেছেন, সরকার ছোট মনের পরিচয় দিয়েছে।

সমাবেশের দিন সকাল থেকেই রাজধানীমুখী স্বল্প ও দূরপাল্লার বাস বন্ধ ছিল। নগর পরিবহনও অন্যান্য দিনের চেয়ে ছিল কম। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের অভিযোগ, বিএনপির সমাবেশে বাধা দিতে সরকারই বাস বন্ধ করে দিয়েছে। তবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাস বন্ধের বিষয়ে সরকার কিছু জানে না। পরিবহন মালিকদের নেতা ও এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা বলেছেন, নানা সময় বিএনপির কর্মসূচিতে বাসে ব্যাপকভাবে আগুন দেয়া হয়েছে। এ কারণে পরিবহন মালিকরা ভয়ে বাস বন্ধ রেখেছেন।

বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সরকারই এই সমাবেশ বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলকে লাইভ সম্প্রচার করতে দেয়নি। দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘সরকার টেলিভিশন চ্যানেলগুলোকে লাইভ সম্প্রচার থেকে বিরত রেখেছে। তাদের অঘোষিত নির্দেশেই বিএনপির সমাবেশ ও দলের চেয়ারপারসনের বক্তব্য লাইভ প্রচার হয়নি।’

তবে সরকারি কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিক কোনো নিষেধাজ্ঞা দেয়নি এটা স্পষ্ট। তথ্য মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে কোনো নির্দেশ জারি করেনি বলে নিশ্চিত করেছেন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের পদস্থ একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘আসলেই এ বিষয়ে কোনো কিছু বলার নেই। সবকিছুই ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তে হয়।’ তবে এখানে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ কে-এই প্রশ্নের জবাব মেলেনি এই কর্মকর্তার কাছে।

বেসরকারি টেলিভিশনের পাশাপাশি ফেসবুক পেজেও এই সমাবেশের সরাসরি সম্প্রচার বন্ধ ছিল। এটা কোনো নির্দেশের কারণে হয়েছে কি না, জানতে চাইলে বাংলাদেশ টেলি যোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা বিটিআরটির জনসংযোগ কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, ‘আমাদের কাছে কারও সমাবেশ সম্পর্কে কোনো তথ্য নেই। ফেসবুক লাইভ করা না করার বিষয়ে আমাদের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের নির্দেশনা ছিল না।’

সূত্র: ঢাকাটাইমস

জনমত জরিপ

????? ?? ??????? ???
??
1 Vote
??
0 Vote