২৩শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
head banar ads here

নিউ ইয়র্কে এক বাংলাদেশিকে ঘরে ঢুকে গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা”

শনিবার, ২৩/১২/২০১৭ @ ৫:১৬ অপরাহ্ণ

Spread the love

নিউ ইয়র্কে এক বাংলাদেশিকে ঘরে ঢুকে গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা”

আরটিএমনিউজ২৪ডটকম, নিউজ ডেস্কঃ নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকা স্টোরিয়ায় এক বাংলাদেশিকে ঘরে ঢুকে পায়ে গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা। আহত ওই ব্যক্তির নাম মহিবুল ইসলাম। বর্তমানে তিনি স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তার পায়ে অস্ত্রোপচার করা হবে। খবর বার্তা সংস্থা এনা’র।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে ইউপিএস কর্মী সেজে এ হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

পুলিশ জানায়, ২১ ডিসেম্বর সকাল ১০টার দিকে ইউপিএসের কর্মী সেজে মহিবুল ইসলাম যে অ্যাপর্টমেন্টে থাকতেন সেই বিল্ডিংয়ের মূল গেইটে এসে বিভিন্ন বাসার নম্বর টিপতে থাকেন কয়েকজন লোক। ইউপিএসের ডেলিভারি ম্যান বলায় কে বা কারা দরজা খুলে দেন। দুর্বৃত্তরা ২৪ স্ট্রিটে এবং ২০ এবং ২১ এভিনিউর মাঝে অবস্থিত অ্যাপার্টমেন্টে ঢুকে প্রথম তলায় মহিবুর ইসলামের দরজা নক করতে থাকে। বার বার নক করায় মহিবুল ইসলাম দরজায় এসে জিজ্ঞেস করলে দুর্বৃত্তরা বলে, আমরা ইউপিএস এর ডেলিভারি দিতে এসেছি। মহিবুল ইসলাম দরজার লক খুলতেই দুর্বৃত্তরা ধাক্কা দিয়ে দরজা খুলে মহিবুল ইসলামের মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে বলে, আমরা তোমাকে খুন করবো। এই কথা বলেই মহিবুলের মাথায় আঘাত করে। আঘাতে মহিবুল ফ্লোরে পড়ে গেলে তার পায়ে গুলি করে।

এই সময় তার স্ত্রী বেড় রুমে ছিলেন। তিনি স্বামীর অবস্থা দেখেই দৌড় দিয়ে বিল্ডিংয়ের তৃতীয় তলায় উঠে প্রতিবেশীর সাহায্য চাইলে তারা পুলিশকে কল করেন। পুলিশ এবং অ্যাম্বুলেন্স এসে মহিবুল ইসলামকে এলেমহার্স্ট হাসপাতালে ভর্তি করে।

মহিবুল ইসলাম বিভিন্ন মিডিয়াকে বলেন, আমি দ্বিতীয় জীবন ফিরে পেয়েছি। দুর্বৃত্তরা আমার কাছে কিছুই চায়নি। কিন্তু আমাকে কেন যে গুলি করলো আমি বুঝতে পারছি না।

এ ব্যাপারে পুলিশ ওই বিল্ডিংয়ের সিসি টিভি পরীক্ষা করছে। পুলিশ দেখতে পেরেছে যে দুর্বৃত্তরা মহিবুলকে গুলি করে রক্তাক্ত অবস্থায় রেখেই কানেকটিকাটের নম্বর প্লেটের একটি গাড়িতে করে পালিয়ে যায়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।তথ্যসূত্রঃ এবিএন নিউজ।