২৩শে এপ্রিল, ২০১৮ ইং, ১১ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
ads here

সাতকানিয়ায় আত্মহত্যার চেষ্টাকারী সেই স্কুল ছাত্রীর মৃত্যু

মঙ্গলবার, ০৯/০১/২০১৮ @ ৪:০৮ অপরাহ্ণ

Spread the love

আরটিএমনিউজ২৪ডটকম, সাতকানিয়া: সাতকানিয়ার খাগরিয়ায় বখাটের উত্ত্যক্তের জেরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টাকারী স্কুল ছাত্রী সাবরিনা সুলতানা ইমু (১৪) অবশেষে মৃত্যুবরণ করেছে। গতকাল বিকেলে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় ছাত্রীটি।

গত রবিবার সকালে ছাত্রীর বাবা মো.আলমগীর বাদী হয়ে শুধুমাত্র বখাটে মো. সুমনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। গতকাল সকালে মামলাটি নথিভুক্ত করেছে সাতকানিয়া থানা পুলিশ। ইমুর লাশ ময়নাতদন্ত শেষে আজ লাশটি পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে জানা গেছে।

সূত্রে প্রকাশ, সাতকানিয়ার খাগরিয়া ইউনিয়নের চর খাগরিয়া খাদিম আলী উচ্চ বিদ্যালয়ে নবম শ্রেণিতে পড়াকালীন ও এর আগে থেকে খাগরিয়ার ওয়ালি সিকদার পাড়ার ছিদ্দিক আহমদের ছেলে বখাটে মো. সুমন (২২) ইমুকে বিভিন্নভাবে উত্যক্ত করে আসছিল। স্থানীয় মেম্বার ও গণ্যমান্য ব্যক্তিরা এ ব্যাপারে জানতে পেরে বখাটেকে শাসিয়ে দিলেও সে পিছু ছাড়েনি ছাত্রীটির। পরবর্তীতে মান-সম্মানের কথা চিন্তা করে ছাত্রীটিকে লেখাপড়া থেকে বিরত রাখে তাঁর পরিবার। পরে ছাত্রীটিকে কেরানীহাটে তাঁর ফুফুর বাসায় রেখে আসে তাঁর বাবা। গত শুক্রবার মেয়েকে তাঁর বাবার বাড়ি খাগরিয়ায় আনার খবর পেয়ে বখাটে সুমন তার সাঙ্গ-পাঙ্গ নিয়ে ছাত্রীটিকে আবারো বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি দিতে থাকে।

এর জেরে শুক্রবার ছাত্রীর বাবা ও পরিবারের অন্যরা জুমার নামাজ পড়তে ব্যস্ত থাকলে ছাত্রীটি ঘরের একটি রুমের ভেতর থেকে দরজা বন্ধ করে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় দড়ি লাগিয়ে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। নামাজ শেষে ঘরে ফিরে অনেক ডাকাডাকির পরও ভেতর থেকে কোন সাড়া শব্দ না পাওয়ায় দরজা ভেঙ্গে রুমে প্রবেশ করে ছাত্রীটিকে তাঁর পরিবারের লোকজন উদ্ধার করে প্রথমে দোহাজারী হাসপাতাল ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য চমেক হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মৃত্যুবরণ করে।

এব্যাপারে সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রফিকুল হোসেন বলেন, আমি গতকাল দুপুুরে ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছি। ইমুকে উত্ত্যাক্তকারী সুমনকে গ্রেপ্তারে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত আছে।