২২শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
head banar ads here

১২ বছরের শিশুকে ১৯ বছরের যুবক দেখিয়ে মিথ্যা মামলা

রবিবার, ০৭/০১/২০১৮ @ ১০:২৯ পূর্বাহ্ণ

Spread the love

আরটিএমনিউজ২৪ডটকম: চট্টগ্রামে ১২ বছরের শিশু মোহাম্মদ সোহেলকে ১৯ বছরের যুবক দেখিয়ে মামলা দায়েরের ঘটনায় তোলাপড় হয়েছে আদালত পাড়ায়।

অবশেষে একটি মানবাধিকার সংগঠনের সহয়তায় আদালত থেকে জামিন পেয়েছে শিশু সোহেল।

শনিবার সেইফ হোম থেকে মুক্ত হয়ে পরিবারে কাছে ফিরে গেছে বলে জানান মামলা পরিচালনাকারী মানবাধিকার আইনজীবি এডভোকেট জিয়া হাবিব
আহসান।

বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশন- বিএইচআরএফ সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম জেলার সাতকানিয়া থানার কেঁওচিয়া ১নং ওয়ার্ড, বাদশা বাপের বাড়ির আসহাব মিয়ার পুত্র মোহাম্মদ নুরুল আলম (৩০) একটি সীমানা বিরোধকে কেন্দ্র করে সংগঠিত তুচ্ছ ঘটনায় প্রতিবেশী প্রবাসী মোজাফফর আহম্মেদের ১২ বছরের শিশু পুত্র মোহাম্মদ সোহেলকে ১৯ বছরের যুবক উল্লেখ করে আদালতে হত্যা প্রচেষ্টা মামলা দায়ের করে প্রতিপক্ষের লোকজন।

সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (সাতকানিয়া) আদালতের নির্দেশে সাতকানিয়া থানা গত ১৪ নভেম্বর ২০১৭ ইং তারিখে ২১ নং মামলা হিসেবে অভিযোগটি মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করে।

বিষয়টি স্থানীয় সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী শহিদুল ইসাম বাবর মানবাধিকার সংগঠন বিএইচআরএফ এর নজরে আনলে তারা অনুসন্ধান চালিয়ে তদন্ত শুরু
করে।

পরে গত ৪ ডিসেম্বর ভিকটিম সোহেলের মা রুজিনা বেগম (৩৫) ও শিশু পুত্র সোহেলকে ভেকেশান জজ নুরুল ইসলাম – এর আদালতে আত্মসমপর্ণ করানো হলে আদালত মায়ের জামিন মঞ্জুর করে শিশুটিকে প্রবেশনে ড্রপ-ইন-সেন্টার (বালক সেইফ হোম) (অপারেজেয় বাংলাদেশ বিআরটিসি শাখায়) প্রেরণ করেন।

প্রায় এক মাস পর গত বৃহস্পতিবার ৪ জানুয়ারী চট্টগ্রাম জেলা শিশু আদালতে শিশুটির জামিনের আবেদন জানালে চাইলে আদালত শিশুটিকে জামিন মঞ্জুর করেন।

ইতিমধ্যে সাতকানিয়া পুলিশ তদন্ত প্রতিবেদনেও ১২ বছরের শিশু সোহেলের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়নি উল্লেখ করে তাকে অব্যাহতি দানের জন্য আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করে।

উল্লেখ্য, বাদী কর্তৃক ১২ বছরের সোহেলের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়েরের কারণে প্রায় এক মাস পরিবার হতে বিছিন্ন বন্দিজীবন যাপন করার কারণে সে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর বার্ষিক পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেনি বলে অভিযোগ করেন তার মা রুজিনা বেগম।

আদালতে শিশু সোহেলের পক্ষে আইনী সহায়তা প্রদান করেন মানবাধিকার আইনজীবীবৃন্দ যথাক্রমে এডভোকেট জিয়া হাবীব আহ্সান, এডভোকেট মোহাম্মদ শরীফ উদ্দিন, এডভোকেট এ এইচ এম জসীম উদ্দিন, এডভোকেট দেওয়ান ফিরোজ আহমদ এবং এডভোকেট হাসান আলী প্রমুখ। পাঠক নিউজ