, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮

1prewettmary1987

অবশেষে বান্দরবান সরকারি কলেজ শিক্ষার্থীদের কপালে জুটল বাস!

প্রকাশ: ২০১৮-০৩-১০ ০৯:৪৬:১১ || আপডেট: ২০১৮-০৩-১০ ০৯:৫৬:৫০

Spread the love

আরটিএমনিউজ২৪ডটকম, বান্দরবান: কলেজের শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে র্দীঘদিন ধরে গ্যারেজে বিকল হয়ে পড়ে থাকা বাসটি সচল করে এবং আরো একটি ভাড়া বাস দিয়ে আবারো শিক্ষার্থী পরিবহন শুরু করেছে বান্দরবান সরকারি কলেজ কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, দফায় দফায় মেরামতের পরও সর্বশেষ দীর্ঘ ১২ বছর ধরে বিকল ছিল কলেজের বাসটি। কিন্তু মেরামতের জন্য পর্যাপ্ত বরাদ্দ না থাকায় সচল করা যাচ্ছিল না শিক্ষার্থী পরিবহনের একমাত্র বাসটি। ফলে দূর-দুরান্তের শিক্ষার্থীদের নানা ভোগান্তি পোহাতে হতো কলেজে পৌঁছাতে।

শিক্ষার্থীরা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে কলেজের একমাত্র বাসটি বিকল হয়ে পড়েছিল। বিআরটিসির একটি বাস দেওয়ার পরও ফিরিয়ে নেয়া হয়। বিভিন্ন সময় এনিয়ে কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানানোর পরও বাসটি পুরোপুরি চালু করতে পারছিল না কলেজ কর্তৃপক্ষ। শেষ পর্যন্ত কলেজের শিক্ষার্থীরা বেশ কয়েকবার দ্বারস্থ হন পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুরের। শিক্ষার্থীদের যাতায়াতে দুর্ভোগের কথা বিবেচনায় নিয়ে প্রতিমন্ত্রীর নিজ উদ্যোগে বাসটি মেরামত করার সিদ্ধান্ত নেন। বাসটি মেরামত হয়ে সচল হলে আজ ১০ মার্চ থেকে বেশ কয়েক দফায় শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে শিক্ষার্থী পরিবহন করতে দেখা গেছে বাসটিকে।

এদিকে শনিবার সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে সাতকানিয়ার কেরানীহাট থেকে শিক্ষার্থী পরিবহন করতে দেখা গেছে একটি বাস কে।

কলেজের মার্ষ্টাস পড়ুয়া শিক্ষার্থী নাজমুল হোসনে বাবলু জানান, দীর্ঘ দেন-দরবারের পর পার্বত্য প্রতিমন্ত্রীর জোর হস্তক্ষেপে বাস চালু হওয়ায় ছাত্র-ছাত্রীরা খুশি। আপাতত কলেজে আসা যাওয়া করতে দূর-দুরান্তের শিক্ষার্থীদের দুর্ভোগ পোহাতে হবে না।

অনার্সের শিক্ষার্থী টিপু দাশ জানান, পুরনো বাসটি সচল হওয়ার পাশাপাশি আরো একটি ভাড়া বাস যোগ হওয়াতে দুর্ভোগ থেকে আপাতত রেহাই পাওয়া যাবে। আশা করবো বাস দুটি সচল থাকবে।

এ বিষয়ে কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মকছুদুল আমিন জানান, ছাত্র-ছাত্রীদের দাবি বিবেচনায় নিয়ে বাসটি মেরামত করে চালু করা হয়েছে। তবে বেশিদিন চালু থাকবে কিনা সন্দেহ রয়েছে। কলেজে বাসটি মেরামত করার জন্য কোন বরাদ্দ না থাকা সত্ত্বেও প্রতিমন্ত্রীর সহযোগিতার আশ্বাসে কলেজের খরচে বাসটি দ্রুত মেরামত করা হয়। তবে পুরনো বাসটি চলাচলের অযোগ্য বলে আরো একটি ভাড়া বাস কলেজে যাত্রী পরিবহনে ব্যবহার করার ব্যাপারে কলেজ কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেয়।

এদিকে, বিআরটিসি থেকে দেওয়া বাসের ব্যাপারে জানতে চাইলে অধ্যক্ষ জানান, বিআরটিসির বাসটি ফিরে পেতে যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে। এর আগে ২০১২ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বান্দরবান সফরে এলে তিনটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য বিআরটিসির বাস উপহারের প্রতিশ্রুতি দেন। সে অনুযায়ী ২০১৪ সালের ১৪ এপ্রিল বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ তিনটি বাস সরবরাহ করে বান্দরবান বান্দরবানের শিক্ষার্থীদের জন্য। এর একটি বাস বরাদ্দ করেছিল বান্দরবান সরকারি কলেজকে। কিন্তু বছর না যেতে সেটিকেও যেতে হয় আঁতুরঘরে। বিকল হওয়া সেই বাসটির আর কোন হদিস পায়নি শিক্ষার্থীরা।

এরপর শিক্ষার্থীরা বাসটি সচল করতে স্মারকলিপি পেশ থেকে শুরু করে নানা দেন-দরবারও করেছে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে একটি নতুন বাস সরবরাহের দাবি করেন কলেজের শিক্ষার্থীরা।

আরটিএমনিউজ২৪ডটকম: মোবাইল চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের আবাসিক হোস্টেলের ৯ম শ্রেণির
ঢাকাঃ জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার ফল আগামী ২৪ ডিসেম্বর
ছবি, ইত্তেফাক। রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক হাসনা হেনার
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রীদের ‘দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া’ আবাসিক হলের নাম ফলক ভেঙ্গে দিয়েছে ছাত্রলীগের নেতা

Logo-orginal

আর টি এম মিডিয়া কর্তৃক প্রকাশিত