১৭ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং, ২রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
ads here

জেরুজালেমে ইহুদী বর্বতার প্রতিবাদে তুর্কিতে লাখো মানুষের বিক্ষোভ ও কঠোর হুশিয়ারী এরদোগানের

মঙ্গলবার, ১৫/০৫/২০১৮ @ ৮:৪৯ পূর্বাহ্ণ

Spread the love

জেরুজালেমে ইহুদী বর্বতার প্রতিবাদে তুর্কিতে লাখো মানুষের বিক্ষোভ ও কঠোর হুশিয়ারী এরদোগানের

আবুল কাশেম,আরটিএমনিউজ২৪ডটকম, মধ্যপ্রাচ্যে: লাখো মানুষের মিছিলে কম্পিত তুর্কির রাজপথ, ইহুদীদের বর্বর হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে প্রতিবাদী হয়ে তুর্কির মুসলমানরা।

সোমবার ইস্তাম্বুলের রাজপথে লাখো মানুষ মিছিলে অংশগ্রহন করে প্রতিবাদ জানায় ইতিহাসের বর্বর এই হত্যাকান্ডের।

আল জাজিরা ও তুর্কি সংবাদে সুত্রে প্রকাশ, জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস মেনে নেওয়া হবেনা বলে কঠোর হুশিয়ারী দিয়ে মিছিল ও বিক্ষোভে ফেটে পড়ে তুর্কি জনগন।

এইদিকে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তৈয়ব এরদোগান বলেছেন, যত পদক্ষেপই নেওয়া হোক, জেরুজালেম হবে ফিলিস্তিনের রাজধানী। ইসরাইল মধ্যপ্রাচ্যকে যুদ্ধের দিকে ঠেলে দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। রবিবার ব্রিটিশ রাজধানী লন্ডনে এসব কথা বলেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

ইরানি গণমাধ্যম প্রেসটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রবিবার বিবিসি উর্দুকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এরদোগান বলেছেন, ইসরাইলি শাসকগোষ্ঠী সিরিয়ায় অপ্রয়োজনীয় আগ্রাসন চালাচ্ছে। মধ্যপ্রাচ্যকে যুদ্ধের দিকে টেনে নিয়ে যাচ্ছে তেলআবিব।

আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম ইউএনবি সুত্রে জানা যায়, গাজার ক্ষমতাসীন দল হামাসের নেতৃত্বে গত মার্চের শেষ দিক থেকে নিয়মিতভাবে সীমান্তে বিক্ষোভের আয়োজন করা হচ্ছে। এসব বিক্ষোভে ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর গুলিবর্ষণে ৮৩ ফিলিস্তিনি নিহত ও আড়াই হাজারের অধিক আহত হয়েছেন। সোমবারও হামাসের সদস্য নিহত হয়েছেন বলে দলটি জানিয়েছে।

হামাসের সিনিয়র নেতা ইসমাইল রাদওয়ান বলেছেন, ফিলিস্তিনি জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা না হওয়া পর্যন্ত ইসরায়েলের বিরুদ্ধে সীমান্তে গণবিক্ষোভ চলমান থাকবে।তিনি আরো বলেন, জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস সরিয়ে আনা আমেরিকান প্রশাসনের জন্য বিপর্যয় বয়ে আনবে এবং তা হবে দেশটির জনগণের ইতিহাসে এক কালো দিন। কারণ তারা ফিলিস্তিনি জনগণের বিরুদ্ধে দখলদারিত্ব ও আগ্রাসনের সঙ্গী হয়েছেন।

প্রসঙ্গত, পবিত্র বায়তুল মুকাদ্দাসে (জেরুজালেম) মার্কিন দূতাবাস উদ্বোধনের দিনে ইহুদিবাদি ইসরাইলি সেনাদের গুলিতে অন্তত ৫৫ ফিলিস্তিনি শহীদ এবং ২,৭০০ জন আহত হয়েছেন। ২০১৪ সালের গাজা যুদ্ধের পর একদিনে ফিলিস্তিনি হতাহতের এটিই সর্বোচ্চ সংখ্যা।

সৌদি আরবের বর্তমান বাদশাহ ও যুবরাজ সালমানের কঠোর সমালোচক সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার উত্তেজনার মধ্যে
সৌদি আরবের প্রখ্যাত সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে জীবিত থাকতেই তাকে টুকরো টুকরো করা হয়। সৌদি কনসাল
নিউজ ডেস্কঃ এ মুহূর্তে মন্ত্রিসভায় যোগদানের কোনো পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার জনপ্রিয় নেতা আনোয়ার
ফাইল ছবি পাকিস্তান সীমান্তবর্তী লুলাকদান এলাকা থেকে ইরানের কয়েকজন সেনা সদস্যকে
সৌদি আরবের ভিন্নমতালম্বী সাংবাদিক জামাল খাসোগি নিখোঁজের ঘটনায় তুরস্ক ও সৌদি আরবের যৌথ তদন্ত দল

সৌদি আরবের বর্তমান বাদশাহ ও যুবরাজ সালমানের কঠোর সমালোচক সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার উত্তেজনার মধ্যে
সৌদি আরবের প্রখ্যাত সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে জীবিত থাকতেই তাকে টুকরো টুকরো করা হয়। সৌদি কনসাল
নিউজ ডেস্কঃ এ মুহূর্তে মন্ত্রিসভায় যোগদানের কোনো পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার জনপ্রিয় নেতা আনোয়ার
[caption id="attachment_60282" align="alignleft" width="800"] ফাইল ছবি[/caption] পাকিস্তান সীমান্তবর্তী লুলাকদান এলাকা থেকে ইরানের কয়েকজন সেনা সদস্যকে
সৌদি আরবের ভিন্নমতালম্বী সাংবাদিক জামাল খাসোগি নিখোঁজের ঘটনায় তুরস্ক ও সৌদি আরবের যৌথ তদন্ত দল

অনলাইন জরিপ

?????
14 Vote

Cricket Score

Poll answer not selected