২০শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং, ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
ads here

বাংলাদেশকে কথা দিয়েও কথা রাখলেন না বাদশাহ সালমান

মঙ্গলবার, ২৬/০৬/২০১৮ @ ২:৫৩ অপরাহ্ণ

Spread the love

বাংলাদেশকে কথা দিয়েও কথা রাখলেন না বাদশাহ সালমান

২০১৬ সালের জুনে সৌদি আরব সফরে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সফরে সৌদি বাদশাহর কাছে বাংলাদেশে জেলা-উপজেলায় মডেল মসজিদ নির্মাণের গুরুত্ব তুলে ধরেন তিনি। এ পরিপ্রেক্ষিতে দেশজুড়ে ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিককেন্দ্র নির্মাণ সংক্রান্ত প্রকল্পে সহায়তার আশ্বাস দেন সৌদি বাদশাহ। এই আশ্বাসেই প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ের প্রকল্প হাতে নেয় সরকার, যার সিংহভাগ সৌদি আরব দেবে বলে ধরে নেয়া হয়। কিন্তু বছর পেরোতেই সেই প্রতিশ্রুতি থেকে সরে গেছে সৌদি। দেশটি এক পয়সাও দেবে না। ফলে প্রকল্প অনুমোদনের পরের বছরেই বাধ্য হয়ে তা সংশোধনের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

পরিকল্পনা কমিশনে এ প্রকল্প সংশোধনের প্রস্তাব পাঠিয়েছে গণপূর্ত অধিদফতর। আগামীকাল মঙ্গলবার এর সংশোধনী প্রস্তাব জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটিতে (একনেক) উপস্থাপনের কথা রয়েছে।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্র জানায়, দেশব্যাপী নেয়া এ প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয় গত বছরের এপ্রিলে। ব্যয় ধরা হয় ৯ হাজার ৬২ কোটি ৪১ লাখ টাকা। এর মধ্যে ৮ হাজার ১৬৯ কোটি ৭৯ লাখ ৩৫ হাজার টাকা সহায়তা দেয়ার কথা ছিল সৌদি আরবের। বাকি টাকা বরাদ্দ দেয়ার কথা ছিল বাংলাদেশ সরকারের (জিওবি)। প্রকল্পের এক বছর পেরিয়ে গেলেও প্রতিশ্রুতির কোনো পয়সা ছাড় করেনি সৌদি। ভবিষ্যতে আর অর্থ ছাড়ও করবে না। তাই প্রকল্প সংশোধন করে সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে এসব মসজিদ কমপ্লেক্স নির্মাণ করা হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রকল্পটির পরিচালক ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মুহাম্মদ আব্দুল হামিদ জমাদ্দার বলেন, মডেল মসজিদ প্রকল্প সংশোধনের প্রস্তাব পরিকল্পনা কমিশনে পাঠানো হয়েছে। এই প্রকল্পে সৌদি আরব অর্থ দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও দেয়নি। ভবিষ্যতেও এ অর্থ পাওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

তিনি বলেন, সব মসজিদই নির্মাণ হবে। ডিজাইনেরও পরিবর্তন হবে না। নির্দিষ্ট মেয়াদেই এগুলোর নির্মাণ কাজ শেষ হবে। তবে এসব নির্মাণে সরকারের নিজস্ব অর্থ বরাদ্দ দেয়ার কথা বলা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত বছরের এপ্রিল থেকে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের কাজ শুরু হয়। চলতি অর্থবছর প্রকল্পের আওতায় বরাদ্দ রয়েছে ৩৬৮ কোটি ৮৮ লাখ টাকা। কিন্তু এই অর্থ তেমন ব্যয় করা হয়নি। এই অবস্থায় প্রকল্প সংশোধন করা হচ্ছে। এতে প্রকল্পের কাজে কিছুটা পরিবর্তন আনা হচ্ছে। কিছু বরাদ্দও কমানো হচ্ছে।

সোশ্যাল ডেস্কঃ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক গোলাম রব্বানী'র সুস্থতা কামনা করছি। ইসলামী ছাত্র
কুষ্টিয়ায় পর পর তিনটি কন্যাসন্তান জন্ম দেয়ার অপরাধে জেসমিনা নামে এক গৃহবধূকে তালাক দিয়েছে তার
আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচনে মহাজোটের হয়ে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে
শহীদুল হক। বাংলাদেশে নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে আটক হওয়া
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াকে গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয়ে তুলে নেয়া

সোশ্যাল ডেস্কঃ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক গোলাম রব্বানী'র সুস্থতা কামনা করছি। ইসলামী ছাত্র
কুষ্টিয়ায় পর পর তিনটি কন্যাসন্তান জন্ম দেয়ার অপরাধে জেসমিনা নামে এক গৃহবধূকে তালাক দিয়েছে তার
আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচনে মহাজোটের হয়ে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করতে
[caption id="attachment_61565" align="alignleft" width="610"] শহীদুল হক।[/caption] বাংলাদেশে নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে আটক হওয়া
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াকে গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয়ে তুলে নেয়া

অনলাইন জরিপ

?????
20 Vote

Cricket Score

Poll answer not selected