, সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯

admin

সেই সেফুদাকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে বাংলাদেশে

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১০ ২১:১০:২৩ || আপডেট: ২০১৮-০৮-১০ ২১:১০:২৩

Spread the love

সেই সেফুদাকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে বাংলাদেশে
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, এবং ইউটিউবে বেশ আলোচনার ঝড় তুলেছেন সেফাতউল্লাহ নামে এক প্রবাসী বাংলাদেশি। সেফাত উল্লাহ খুলনা জেলার সোনাডাঙ্গায় ৫ নভেম্বর ১৯৪৬ সালে জন্মগ্রহন করেন। তবে তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুর।। বর্তমানে তিনি ফেসবুকের কল্যানে ভাইরাল! বিভিন্ন সময়ে তার করা উক্তি নিয়ে এখন ফেসবুক ব্যবহার কারীরা ট্রল বানাচ্ছে যা বিভিন্ন জনপ্রিয় ফেসবুক গ্রুপ এবং পেইজ এ ঘুরে বেড়াচ্ছে। সেফাত উল্লাহর করা বেশির ভাগ উক্তি ই অশ্লিল এবং কুরুচি পূর্ণ। প্রথম থেকেই তিনি ফেসবুকের লাইভে নানান ধরণের অশ্লীল, অসঙ্গতিপূর্ণ ও বিদ্বেষমূলক ভিডিওবার্তা ছড়িয়ে আলোচনায় আসেন অস্ট্রিয়ার রাজধানীর ভিয়েনায় অবস্থান করা সেফাতউল্লাহ ওরফে সেফুদা।

তার নানা ধরণের অশ্লীল ভাষার লাইভে বেশির ভাগ সময়ই জুরে থাকতো বাংলাদেশের প্রদান দুটি রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ এবং বিএনপি’র কোন না কোন নেতা, বর্তমানে বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ের দায়ত্বে থাকা মন্ত্রী, এমন কি প্রধানমন্ত্রী এবং তার পরিবারের সদস্যদের কে নিয়েও নান ধরনের কুরুচি পূর্ন ভাষা ব্যবহার করে বক্তব্য দিয়েছে।
এছাড়া নিজেকে প্রেম সম্রাট দাবি করে লাইভে এসে মদ পান করতেন এবং মেয়েদের কে নিয়ে তিনি নানা ধরনের অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করতেন।
এছাড়াও বর্তমানে জেল হাজতে থাকা সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং তার ছেলে তারেক জিয়াকে নিয়েও নানা সময়ে তার বক্তব্য ভাইরাল হয়েছে। 
তার বিষয়ে ভিয়েনা বাঙালি কমিউনিটির সদস্য এবং প্রবাসী সাংবাদিক ফিরোজ আহমেদ জানান, সেফাতউল্লাহ ১৯৯০ সাল থেকে ভিয়েনায় আছেন। তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া করেছেন, এবং ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন এছাড়া বিভিন্ন সময়ে নানা ধরনের ব্যবসাও করেছেন এবং তার দাবি অনুযায়ি তিনি মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন কিন্তু তিনি স্বীকৃতি পাননি। 

আহমেদ ফিরোজ জানান, ‘ভিয়েনা বাংলাদেশ কমিউনিটির এক পারিবারের সাথে ঝগড়া করার কারণে কোর্টের রায়ে দীর্ঘদিন ভিয়েনায় জেল খাটেন সেফাতউল্লাহ। তিনি জেল থেকে মুক্ত হবার পর অস্ট্রিয়ার আইন অনুযায়ী তার লিগ্যাল হবার সব রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। যার প্রভাব পড়ে তার ব্যক্তিগত ও পারিবারিক জীবনে। স্ত্রী সন্তানদের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন তিনি। মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে মাদকাসক্ত হয়ে পড়েন। পরবর্তীতে মানসিক বিকারগ্রস্ত হয়ে পড়েন সেফাতউল্লাহ।’
আহমেদ ফিরোজ জানান, ‘সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় তার প্রতি মানুষের আগ্রহ তাকে আরো বেশি উন্মাদ করে তুলেছে। বিভিন্ন সময় রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের নিয়ে অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়েছেন সেফাতউল্লাহ।’

তিনি আরো জানান, ‘সেফাতউল্লাহকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু করেছে অস্ট্রিয়া সরকার। ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া এগিয়ে আসার সময়েই তিনি বিভিন্ন কুরুচিপূর্ণ ও অশ্লীল ভিডিওবার্তা দিচ্ছেন, যাতে বাংলাদেশি জনগণ তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়। আর এই কারণ দেখিয়ে তিনি অস্ট্রিয়ায় রাজনৈতিক আশ্রয় নেওয়ার পথ সুগম করতে চান।’

এ বিষয়ে আহমেদ ফিরোজ বলেন, ভিয়েনায় বাংলাদেশ দূতাবাস সেফাতউল্লার কর্মকাণ্ডের বিষয়ে অবগত আছেন। ভিয়েনায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। অচিরেই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সুত্র: ইন্টারনেট।

সেই ২০১৫ সাল। ওই বছরের অক্টোবরে যুক্তরাষ্ট্র সফরে গিয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। এর
ইয়েমেনের লড়াইয়ের শুরুটা হয় আরব বসন্ত দিয়ে, যার মাধ্যমে আসলে দেশটিতে স্থিতিশীলতা আসবে বলে মনে
আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সম্প্রতি ডেনমার্কের একটি স্কুলে নামাজ পড়া শেখানো নিয়ে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।
সৌদি আরবে সেনা মোতায়েন করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইতিমধ্যে সৌদিতে সেনা ও সরঞ্জাম
ভারতে ফের গো রক্ষকরা পিটিয়ে হত্যা করল তিন মুসলিমকে, বিহার অঙ্গরাজ্যে গরু চুরির সন্দেহে তিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal