, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯

admin

এবার সিলেটে বেঁচে গেল বিমানের ৬৫ যাত্রী

প্রকাশ: ২০১৮-১০-০৪ ০১:৩৬:৫৯ || আপডেট: ২০১৮-১০-০৪ ০১:৩৬:৫৯

Spread the love

এবার সিলেটে বেঁচে গেল বিমানের ৬৫ যাত্রীসিলেট এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ইমার্জেন্সি ল্যান্ডিং (জরুরি অবতরণ) করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি উড়োজাহাজ।

বুধবার বিকাল ৪টা ২০ মিনিটে ঢাকা থেকে আসা বিমানের (উড়োজাহাজ) ল্যান্ডিং চাকায় সমস্যা দেখা দিলে পাইলট ফ্লাইটটির জরুরি অবতরণ করেন।

বিমানটি পরে ঢাকার উদ্দেশে সিলেট থেকে ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল। যান্ত্রিক ত্রুটির ফলে বিমানের ৬৬ জন যাত্রী দুর্ভোগে পড়েন।

বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় পর্যন্ত উড়োজাহাজটি মেরামতের কাজ চলছিল, যাত্রীরা বিমানবন্দরে অপেক্ষায় ছিলেন।

যাত্রীরা জানান, ঢাকা থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি ৬০১নং ফ্লাইটটি ৬৫ জন যাত্রী নিয়ে সিলেটে আসে। ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিমানের ল্যান্ডিং চাকায় সমস্যা দেখা দেয়। বিষয়টি যাত্রীদের অবহিত করেন পাইলট। ওই সময় যাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়। শুরু হয় কান্নাকাটি। পরে জরুরি অবতরণ করে ফ্লাইটটি। তবে কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

ওই ফ্লাইটে থাকা সিলেট আওয়ামী লীগের এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, আল্লাহর শুকরিয়া যে দুর্ঘটনা ঘটেনি। বিমানটির ডান পাশের চাকায় সমস্যা দেখা দিয়েছিল। এ বিষয়টি জানার পর যাত্রীদের অনেকেই কান্নাকাটি শুরু করেন। অনেকেই আল্লাহর নাম জপতে থাকেন। বিমানের পাইলট খুবই দক্ষতার সঙ্গে দুবারের চেষ্টায় ল্যান্ড করেন।

তিনি আরও বলেন, ফ্লাইট ল্যান্ড করার পর আমরা চারপাশে ফায়ার ব্রিগেডের গাড়ি, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের প্রস্তুত দেখতে পাই।

ওই ফ্লাইটে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সুব্রত পুরকায়স্থও ছিলেন।

তিনি বলেন, বিমানের চাকায় সমস্যা হওয়ার পর পাইলট বিষয়টি যাত্রীদের জানান। তিনি প্রথম চেষ্টায় ল্যান্ড করতে পারেননি। পরে দ্বিতীয়বারের চেষ্টায় ইমার্জেন্সি ল্যান্ডিং করেন।

এ বিষয়ে বিমানের পরিচালক মোহাম্মদ শাহ নেওয়াজ যুগান্তরকে জানান, শুনেছি চাকায় সামান্য সমস্যা হয়েছিল। কোনো ধরনের ক্ষয়ক্ষতি ছাড়াই নিরাপদে ফ্লাইট অবতরণ করেছে।

তবে বিমানের সিলেট স্টেশনের ম্যানেজার মোল্লা জিল্লুর রহমান বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় যান্ত্রিক ত্রুটির বিষয়টি অস্বীকার করে যুগান্তরকে বলেন, স্বাভাবিক অবতরণ হয়েছে। অবতরণের পর ইঞ্জিনিয়াররা দেখে বলছেন চাকায় কাজ করাতে হবে। ৬৬ জন যাত্রী অপেক্ষা করছেন, কাজ শেষ হলেই উড়োজাহাজটি ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবে। সুত্রঃ যুগান্তর।

আমার বাসা উপরশহর। বাসা দূর বলে আমি সাধারণত রুয়েট থেকে রেইলগেট পর্যন্ত অটোতে করে আসি।
পার্বত্য জেলা  বান্দরবানের রুমা উপজেলায় ৩ গাড়ি চালক ও ৩ হেলপারকে অপহরণ করেছে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা।
খুলনায় যৌথ বিনিয়োগে ব্যবসার সুযোগে চার কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে বাবা-ছেলেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার
ছবি, সেনাবাহিনীর উপর সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনা খুবই বিরল। (আর্কাইভ থেকে নেয়া) বিবিসি। বাংলাদেশে পার্বত্য জেলা
জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ চেয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহসভাপতি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal