২১শে অক্টোবর, ২০১৮ ইং, ৬ই কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
ads here

গ্রেনেড হামলার পলাতক আসামিরা কে কোথায়

বুধবার, ১০/১০/২০১৮ @ ১:৪৩ অপরাহ্ণ

Spread the love

গ্রেনেড হামলার পলাতক আসামিরা কে কোথায়

ছবি, সময় টিভি।

ঢাকাঃ ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর ও আব্দুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড  দিয়েছেন আদালত। এছাড়া  বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও হারিছ চৌধুরীসহ ১৯ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আরও ১১ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। খবর সময় টিভির।

বুধবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে বিশেষ জজ আদালত-৫–এর বিচারক শাহেদ নূর উদ্দীন এই রায় দেন।

তবে, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ১৮ আসামি এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে। তাদের মধ্যে নয়জন যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন দেশে অবস্থান করছে। ভারতে কারাবন্দি রয়েছে দুইজন। অন্য সাত আসামির অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত নয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

এদিকে, তারেককে ফিরিয়ে আনতে যুক্তরাজ্য সরকারের সঙ্গে আলোচনা চলছে। আর অন্যদের ফিরিয়ে আনতে ইন্টারপোলের সহায়তা চাওয়া হয়েছে বলে জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

পলাতক আসামিদের মধ্যে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও বিএনপি নেতা হারিছ চৌধুরী যুক্তরাজ্যে, বিএনপি নেতা মোফাজ্জল হোসেইন কায়কোবাদ ও হরকাতুল জিহাদ নেতা জাহাঙ্গীর বদর সংযুক্ত আরব আমিরাতে, তৎকালীন ডিজিএফআই’র কর্মকর্তা মেজর জেনারেল (অব.) এ টি এম আমিন যুক্তরাষ্ট্রে, আরেক কর্মকর্তা লে. কর্নেল (বরখাস্ত) সাইফুল ইসলাম জোয়ারদার কানাডায় রয়েছে। এছাড়া মাওলানা তাজউদ্দিন ও তার ভাই বাবু ওরফে রাতুল বাবু দক্ষিণ আফ্রিকায়, পরিবহন ব্যবসায়ী মোহাম্মদ হানিফ থাইল্যান্ডে অবস্থান করছে। আর ভারতের কারাগারে বন্দি আছে দুই জঙ্গি-আনিসুল ইসলাম মোরসালিন ও মুহিবুল ইসলাম মুত্তাকিন।

অন্য আসামিদের মধ্যে হরকাতুল জিহাদ নেতা শফিকুর রহমান, আব্দুল হাই, দেলোয়ার হোসেন জোবায়ের ওরফে লিটন, খলিলুর রহমান ও ইকবাল এবং পুলিশ কর্মকর্তা খান সাঈদ হাসান ও ওবায়দুর রহমান কোথায় আছে, সে সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য নেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে।

কারাবন্দি থাকা আসামিরা হলেন- বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, উপমন্ত্রী আব্দুস সালাম পিন্টু, সামরিক গোয়েন্দা অধিদফতরের সাবেক মহাপরিচালক মেজর জেনারেল (অব.) রেজ্জাকুল হায়দার চৌধুরী, জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থার সাবেক মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আব্দুর রহিম, পুলিশের সাবেক আইজি শহিদুল হক, খোদা বক্স ও আশরাফুল হুদা, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ভাগ্নে সাইফুল ইসলাম ডিউক, ঢাকা সিটি করপোরেশেনের সাবেক কাউন্সিলর আরিফুল ইসলাম আরিফ, সিআইডির সাবেক তিন কর্মকর্তার মুন্সী আতিকুর রহমান, আব্দুর রশীদ ও রুহুল আমিন, পাকিস্তানি নাগরিক আব্দুল মজিদ ওরফে ইউসুফ ভাট ওরফে আব্দুল মাজেদ ভাট, হরকাতুল জিহাদ ও অন্যান্য জঙ্গি সংগঠনের নেতা মাওলানা শেখ আব্দুস সালাম, মাওলানা শেখ ফরিদ, আব্দুল মালেক ওরফে গোলাম মোস্তফা ওরফে জিএম, মাওলানা আব্দুল হান্নান ওরফে সাব্বির, মাওলানা আব্দুর রউফ, হাফেজ মাওলানা ইয়াহিয়া, মহিবুল্লাহ ওরফে মফিজুর রহমান ওরফে অভি, মাওলানা আবু সাঈদ ওরফে ডাক্তার আবু জাফর, আবুল কালাম আজাদ ওরফে বুলবুল, জাহাঙ্গীর আলম, হাফেজ মাওলানা আবু তাহের, শাহাদাত উল্লাহ ওরফে জুয়েল, হোসাইন আহম্মেদ তামিম, মঈন উদ্দিন শেখ ওরফে মুফতি মঈন ওরফে খাজা ওরফে আবু জান্দাল ওরফে মাসুম বিল্লাহ, আরিফ হাসান ওরফে সুমন ওরফে আব্দুর রাজ্জাক, রফিকুল ইসলাম সবুজ ওরফে খালিদ সাইফুল্লাহ ওরফে শামিম ওরফে রাশেদ, উজ্জ্বল ওরফে রতন ও আবু বকর ওরফে হাফেজ সেলিম হাওলাদার। তারা বিভিন্ন সময়ে গ্রেফতার হয়ে কারাগারে আছে।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট রাজধানীর গুলিস্তানে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সন্ত্রাসবিরোধী জনসভায় গ্রেনেড হামলা হয়। ওই জনসভায় ভয়াবহ গ্রেনেড হামলায় আওয়ামী লীগের ২২ জন নেতা-কর্মী ও অজ্ঞাত দুই ব্যক্তি নিহত হন। তবে ওই হামলার প্রধান টার্গেট ছিলেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও সে সময়ের বিরোধীদলীয় নেতা শেখ হাসিনা। প্রাণে বেঁচে গেলেও গুরুতর আহত হন তিনি। এ ঘটনায় মোট ৫২ জনকে আসামি করা হয়। এরমধ্যে বিএনপি-জামায়াত জোটের মন্ত্রী ও জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ, হরকাতুল জিহাদ নেতা মুফতি আব্দুল হান্নান ও শরীফ শাহেদুল আলমের ফাঁসি হয়েছে অন্য মামলায়। বাকি আসামিদের মধ্যে ৩১ জন কারাবন্দি।

রাজনীতিবিদ ও রাজনৈতিক দলের কথায় কাজ করবে না ইসি: সিইসি আরটিএমনিউজ২৪ডটকম: রাজনীতিবিদ
রিজভীর নেতৃত্বে রাজধানীতে বিএনপি'র কালো পতাকা মিছিল আরটিএমনিউজ২৪ডটকম: ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা
বাংলাদেশে বিএনপি দাবি করছে নতুন জোটের কারণে তাদের কর্মীরা চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশে বিরোধীদল বিএনপির
নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় নির্বাচন আয়োজনের দাবিতে আন্দোলনের অংশ হিসেবে ২৪ অক্টোবর সিলেট শহরের
চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম:বন্দরনগরীর ছেলে আইয়ুব বাচ্চু। সেখানেই কেটেছে শৈশব-কৈশর। এরপর ঢাকা। ঢাকা ছাপিয়ে নামডাক বিশ্বজুড়ে। নগরের

[caption id="attachment_67932" align="alignnone" width="800"] রাজনীতিবিদ ও রাজনৈতিক দলের কথায় কাজ করবে না ইসি: সিইসি[/caption] আরটিএমনিউজ২৪ডটকম: রাজনীতিবিদ
[caption id="attachment_67918" align="alignnone" width="628"] রিজভীর নেতৃত্বে রাজধানীতে বিএনপি'র কালো পতাকা মিছিল[/caption] আরটিএমনিউজ২৪ডটকম: ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা
বাংলাদেশে বিএনপি দাবি করছে নতুন জোটের কারণে তাদের কর্মীরা চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশে বিরোধীদল বিএনপির
নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় নির্বাচন আয়োজনের দাবিতে আন্দোলনের অংশ হিসেবে ২৪ অক্টোবর সিলেট শহরের
চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম:বন্দরনগরীর ছেলে আইয়ুব বাচ্চু। সেখানেই কেটেছে শৈশব-কৈশর। এরপর ঢাকা। ঢাকা ছাপিয়ে নামডাক বিশ্বজুড়ে। নগরের

অনলাইন জরিপ

?????
14 Vote

Cricket Score

Poll answer not selected