, শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮

admin

নেপালকে হারিয়ে দুর্দান্ত চ্যাম্পিয়ন লাল সবুজের মহিলারা

প্রকাশ: ২০১৮-১০-০৮ ০১:৪৫:৫১ || আপডেট: ২০১৮-১০-০৮ ০১:৪৫:৫১

Spread the love

সাফনেপালকে হারিয়ে দুর্দান্ত চ্যাম্পিয়ন লাল সবুজের মহিলারা অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে শুরু থেকেই উড়ছে বাংলাদেশ। পাকিস্তানকে ১৭-০ গোলে উড়িয়ে টুর্নামেন্টে উড়ন্ত সূচনা পাওয়া বাংলাদেশ গ্রু পর্বের শেষ ম্যাচে হারায় নেপালকে। সেই ম্যাচে নেপালকে ২-১ গোলে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই সেমিফাইনালে পা রাখে গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যরা। দাপটের সঙ্গে গ্রুপ পর্ব পেরোনোর পর সেমিফাইনালেও বজায় থাকে বাংলাদেশি মেয়েদের দাপট।

সেই দাপটের সামনে পাত্তা পায়নি ভুটানও। স্বাগতিকদের ৪-০ গোলের ব্যবধানে উড়িয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরের ফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ছিল গ্রুপ পর্বের প্রতিদ্বন্দ্বী নেপাল। ফাইনালের মঞ্চে নেপালকে আরেকবার হারিয়েছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।

৭ অক্টোবর, রবিবার নেপালকে ১-০ গোলে হারিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে প্রথম আসরে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জান করল বাংলাদেশ। দলের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন মাসুরা পারভীন। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ে এই নেপালের বিপক্ষেই ২-১ ব্যবধানে জয় পেয়েছিল গোলাম রব্বানী ছোটনের দল।

ভুটানের থিম্পুর চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে সিরাত জাহান স্বপ্নাকে একাদশে ফিরিয়ে নেপালের বিপক্ষে মাঠে নামে বাংলাদেশ। এদিন ৩ মিনিটেই প্রথম ফ্রি কিক পেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু সেই সুযোগ কাজে লাগাতে দেননি প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডাররা। একই মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত নেপাল। কিন্তু দক্ষতার সঙ্গে নেপালের আক্রমণ রুখে দেন বাংলাদেশি গোলরক্ষক।

এরপর একাধিকবার চেষ্টার করেও গোলের দেখা পায়নি কোনো দল। ৭ মিনিটে আবারও সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ফিনিশিং ভালো না হওয়ায় মেলেনি গোলের দেখা। একাধিক আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণের পরও গোলশূন্যভাবে শেষ হয় খেলার প্রথমার্ধ।

দ্বিতীয়ার্ধে যেন আরও আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে বাংলাদেশের মেয়েরা। ৪৯তম মিনিটে মেলে কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা। এ সময় মাঝ মাঠের একটু ওপরে ফাউলের শিকার হন স্বপ্না। ফ্রি কিক পায় বাংলাদেশ। মিশরাত জাহান মৌসুমীর নেওয়া ফ্রি কিকে হেড দিয়ে নেপালের জালে বল জড়ান ডিফেন্ডার মাসুরা পারভীন। টুর্নামেন্টে এটিই তার একমাত্র গোল। পরবর্তী সময়ে অবশ্য এই গোলটিই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেয়।

দুই মিনিট পরই সমতায় ফিরতে পারত সেমিফাইনালে শক্তিশালী ভারতকে টাইব্রেকারে ৩-১ গোলে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করা নেপাল। কিন্তু পোস্টে লেগে ফিরে আসে নেপালের এই আক্রমণ। ম্যাচের বাকি সময়ে ব্যবধান বাড়াতে পারেননি কৃষ্ণা-সানজিদারা। সমতায় ফিরতে পারেননি নেপালও। আর তাতে এক গোলেই স্বস্তির জয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

এই টুর্নামেন্টে মাত্র একটি গোল হজম করেছে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। জবাবে প্রতিপক্ষের জালে সবমিলিয়ে বল জড়িয়েছে ২৪বার। প্রতিযোগিতায় সর্বোচ্চ গোলদাতা বাংলাদেশের সিরাত জাহান স্বপ্না। সব মিলিয়ে তার নামের পাশে যোগ হয়েছে ৮ গোল। সুত্রঃ প্রিয়া কম।

প্রেম-বিচ্ছেদ এসব নিত্যসঙ্গী ব্রাজিলের সুপারস্টার নেইমারের। এ পর্যন্ত একাধিক তরুণীর প্রেমে পড়েছেন। কিছু দিন পর
ছবি, সংগৃহীত। চ্যাম্পিয়নস লিগে কাল জুভেন্টাসকে তাদের মাঠে ২-১ গোলে
সাফ চ্যাম্পিয়নসশিপে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ কিশোর দলের সামনে ছিল নেপাল আর ভুটানকে এক বিন্দুতে মেলানোর। সুযোগ

Logo-orginal

আর টি এম মিডিয়া কর্তৃক প্রকাশিত