, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯

rtm

বাবর-পিন্টুসহ ৩১ আসামি ঢাকায়, আদালত এলাকায় কড়া নিরাপত্তা

প্রকাশ: ২০১৮-১০-১০ ১০:০৬:২২ || আপডেট: ২০১৮-১০-১০ ১০:০৬:৫৮

Spread the love
বাবর-পিন্টুসহ ৩১ আসামি ঢাকায়, আদালত এলাকায় কড়া নিরাপত্তা

আরটিএমনিউজ২৪ডটকম: ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার ৩১ আসামিকে গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে ঢাকার আদালতে পাঠানো হয়েছে। তাঁদের মধ্যে লুৎফুজ্জামান বাবর ও আব্দুস সালাম পিন্টুও রয়েছেন। আজ বুধবার সকাল সাতটার দিকে পুলিশের প্রিজন ভ্যানে বাড়তি নিরাপত্তা দিয়ে তাঁদের পাঠানো হয়। মামলার রায় ঘোষণার সময় পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের বিশেষ ট্রাইব্যুনালে আসামিদের উপস্থিত করা হবে।

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার ১ ও ২ এর ভারপ্রাপ্ত জেল সুপার সুব্রত কুমার বালা বলেন, কেন্দ্রীয় কারাগার ১ ও ২-এ থাকা ১৪ আসামিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কারাগারের জেল সুপার শাহজাহান আহমেদ বলেন, হাইসিকিউরিটিতে থাকা ১৭ জন আসামিকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার ১ ও ২-এ থাকা আসামিদের মধ্যে বাবর ও পিন্টু ছাড়াও রয়েছেন হুজি নেতা আরিফ হাসান সুমন ও মওলানা আব্দুর রউফ, পুলিশের সাবেক আইজি আশরাফুল হুদা ও শহুদুল হক, অতিরিক্ত আইজি খোদা বক্স, খালেদা জিয়ার ভাগনে লেফটেন্যান্ট কমান্ডার (অব.) সাইফুল ইসলাম ডিউক, সিআইডির সাবেক বিশেষ পুলিশ সুপার রুহুল আমীন, এএসপি আব্দুর রশিদ ও মুন্সি আতিকুর রহমান, ঢাকা মহানগর বিএনপির নেতা আরিফুর রহমান আরিফ, এনএসআইয়ের সাবেক মহাপরিচালক মেজর জেনারেল (অব.) রেজ্জাকুল হায়দার চৌধুরী এবং ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আব্দুর রহিম।

এদিকে গ্রেনেড হামলা মামলার রায়কে কেন্দ্র করে পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে স্থাপিত ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইবুনাল-১ এলাকায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। আদালতের আশেপাশের সব রাস্তায় বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। নাজিম উদ্দিন রোড এলাকার প্রবেশপথগুলোতে ব্যারিকেড দিয়ে পুলিশের সতর্ক প্রহরায় রাখা হয়েছে। তালিকাভুক্ত সাংবাদিক ছাড়া কাউকে আদালতের ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। আদালত ভবনের আশেপাশে বাড়তি পুলিশ সদস্য মোতায়েন রয়েছে। এ এলাকায় বহিরাগতদের প্রবেশে রয়েছে নিষেধাজ্ঞা।

চাঁনখারপুল থেকে শুরু করে আশপাশের সড়কগুলোয় রাস্তা দিয়ে ব্যারিকেড দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। জনসাধারণের প্রবেশে রয়েছে কড়াকড়ি, সন্দেহ হলেই পরিচয় নিশ্চিত হয়ে তল্লাশি শেষে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে।

এছাড়া, শাহবাগ, ফার্মগেট, বকশিবাজার এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার পরদিন ২২ আগস্ট দণ্ডবিধির ১২০/বি, ৩২৪, ৩২৬, ৩০৭, ৩০২, ২০১, ১১৮, ১১৯, ২১২, ৩৩০, ২১৮, ১০৯ ও ৩৪ ধারায় মতিঝিল থানার এসআই শরীফ ফারুক আহমেদ বাদী হয়ে একটি মামলা (নং-৯৭) দায়ের করেন। ২০০৮ সালের ৯ জুন হরকাতুল জিহাদ নেতা মুফতি হান্নানসহ ২২ জনকে অভিযুক্ত করে হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে সিএমএম আদালতে দু’টি অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেন সিআইডির সিনিয়র এএসপি ফজলুল কবির। ওই বছরই মামলা দু’টির কার্যক্রম দ্রুত বিচার আদালত-১-এ স্থানান্তর করা হয়। এ আদালতে হত্যা ও বিস্ফোরক আইনের ২৯/১১ (হত্যা) ও ৩০/১১ (বিস্ফোরক) মামলা দু’টির বিচার কার্যক্রম শুরু হয়।

(ছবি! সময় নিউজ) বুয়েটছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, ক্ষমতাসীন
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ‘জাতীয় সংসদের হুইপ শামসুল হক চৌধুরী ক্লাবে জুয়ার আসর থেকে ১৮০ কোটি
কথিত আলেম মুফতির দাবীদার গিয়াসউদ্দীন তাহেরীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা খারিজ করে দিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার
মানহানির অভিযোগে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টির দায়ের করা মামলায় সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে
বহুল আলোচিত-সমালোচিত বক্তা ও ‘দাওয়াতে ঈমানী বাংলাদেশ’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন আত তাহেরীর বিরুদ্ধে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal