, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯

admin

বিয়ের কথা বলে কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণ” অপমানে আত্মহত্যা

প্রকাশ: ২০১৮-১১-০৭ ১৬:০৯:২১ || আপডেট: ২০১৮-১১-০৭ ১৬:০৯:২১

Spread the love

বিয়ের কথা বলে কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণ" অপমানে আত্মহত্যা
ছবি, সংগৃহীত।

পাবনার সুজানগরে বিয়ের কথা বলে ডেকে নিয়ে এক কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে কথিত প্রেমিক ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে। আর এ অপমান সইতে না পেরে বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন মুর্শিদা খাতুন (১৯) নামের ওই কলেজছাত্রী।

আত্মহত্যার আগে মুর্শিদা খাতুন তার মৃত্যুর জন্য ৩ জনকে দায়ী করে একটি চিঠি লিখে রেখে গেছেন।

পুলিশ ও পরিবার সূত্র জানায়, সুজানগর উপজেলার হাটখালী ইউনিয়নের শ্রীপুর গ্রামের মেয়ে এবং মালিফা সেলিম রেজা হাবিব ডিগ্রি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী মুর্শিদার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে একই এলাকার মৃত রজব আলীর ছেলে ছোবদুল খানের। এই প্রেমের সস্পর্কের জেরে বৃহস্পতিবার ওই কলেজছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে কাশিনাথপুরে ডেকে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে প্রেমিক ছোবদুল ও তার সহযোগীরা।

পরদিন শুক্রবার এ ঘটনা কাউকে না জানানোর জন্য হুমকি দিয়ে কলেজছাত্রীকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয় অভিযুক্তরা। বাড়ি ফিরে এ অপমান সইতে না পেরে ওইদিনই বিষপান করে ধর্ষণের শিকার কলেজছাত্রী।

মুমুর্ষ অবস্থায় তাকে প্রথমে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে সোমবার রাতে তার মৃত্যু হয়। মঙ্গলবার সকালে পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে নিহতের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।

সুজানগর থানার ওসি শরিফুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় কলেজ ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ছোবদুলকে এজাহার নামীয় ও অজ্ঞাতনামা ৩-৪ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

লক্ষীপুরঃ এখনো চালাতে পারেনা তেমন, তবুও মোটরসাইকেল কিনে দেওয়ার জন্য বাবার কাছে আবদার করে বসে
কক্সবাজারঃ খুতবা দিতে গিয়ে মসজিদে খতীবের আকস্মিক মৃত্ব্য হল কক্সবাজার সদরে। *ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না
সিলেটের ওসমানীনগরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের প্রথম
রাঙামাটিঃ জেলার বাঘাইছড়িতে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা) সহযোগী সংগঠন যুব সমিতির দুই নেতাকে
ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এই প্রথম ফরহাদ হোসেন (২০) নামে এক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal