, সোমবার, ১০ আগস্ট ২০২০

Avatar admin

বাংলা সাহিত্যের অন্যতম কবি আল মাহমুদের ইন্তেকাল

প্রকাশ: ২০১৯-০২-১৫ ২৩:৪৫:৪৭ || আপডেট: ২০১৯-০২-১৬ ০০:০২:৩১

Spread the love

ঢাকাঃ বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কবি আল মাহমুদ আর নেই। শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাত ১১টা ৫ মিনিটে তিনি ধানমন্ডিতে ইবনে সিনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন (ইন্নানিল্লাহি…রাজিউন)।

আল মাহমুদের ব্যক্তিগত সহকারী কবি আবিদ আজম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

৮৪ বছর বয়েস পরপারের বাসিন্দা হন তিনি।

১৯৩৬ সালের ১১ জুলাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার মোড়াইল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন কবি আল মাহমুদ। তাঁর প্রকৃত নাম মীর আব্দুস শুকুর আল মাহমুদ। তিনি বাংলাদেশের অন্যতম প্রধান কবি ছিলেন।

কবি আল মাহমুদের পরিচিতিঃ

পিতা : আব্দুর রব মীর। মা : রৌশন আরা বেগম। স্ত্রী : সৈয়দা নাদিরা বেগম। পুত্রকন্যা : পাঁচ পুত্র, তিন কন্যা। পেশা : অবসরপ্রাপ্ত পরিচালক, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী। 

উল্লেখযোগ্য গ্রন্থকবিতা : লোক লোকান্তর, কালের কলস, সোনালী কাবিন, মায়াবী পর্দা দুলে ওঠো, প্রহরান্তরের পাশ ফেরা, আরব্য রজনীর রাজহাঁস, মিথ্যেবাদী রাখাল, আমি দূরগামী, বখতিয়ারের ঘোড়া, দ্বিতীয় ভাঙন, নদীর ভেতরে নদী, উড়াল কাব্য, বিরামপুরের যাত্রী, না কোন শূন্যতা মানি না প্রভৃতি। ছোটগল্প : পান কৌড়ির রক্ত, সৌরভের কাছে পরাজিত, গন্ধবনিক, ময়ূরীর মুখ প্রভৃতি। উপন্যাস : কাবিলের বোন, উপমহাদেশ, পুরুষ সুন্দর, চেহারার চতুরঙ্গ, আগুনের মেয়ে, নিশিন্দা নারী প্রভৃতি। শিশুতোষ : পাখির কাছে ফুলের কাছে। প্রবন্ধ : কবির আত্মবিশ্বাস, কবির সৃজন বেদন., আল মাহমুদের প্রবন্ধ সমগ্র। ভ্রমণ : কবিতার জন্য বহুদূর, কবিতার জন্য সাত সমুদ্র প্রভৃতি৷ এছাড়াও প্রকাশিত হয়েছে আল মাহমুদ রচনাবলী। পুরস্কার বাংলা একাডেমী পুরস্কার (১৯৬৮), জয়বাংলা পুরস্কার (১৯৭২), হুমায়ুন কবির স্মৃতি পুরস্কার (১৯৭৪), জীবনানন্দ দাশ স্মৃতি পুরষ্কার (১৯৭৪), সুফী মোতাহের হোসেন সাহিত্য স্বর্ণপদক (১৯৭৬), ফিলিপস সাহিত্য পুরস্কার (১৯৮৬), একুশে পদক (১৯৮৭),নাসিরউদ্দিন স্বর্ণপদক (১৯৯০), সমান্তরাল (ভারত) কর্তৃক ভানুসিংহ সম্মাননা পদক- ২০০৪ প্রভৃতি।

ট্যাগ: কবি আল মাহমুদ সাহিত্য

Logo-orginal