, সোমবার, ২৭ মে ২০১৯

rtm

রাত পোহালেই উত্তর চট্টগ্রামের পাঁচ উপজেলায় ভোট

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-১৭ ২১:২৪:২৫ || আপডেট: ২০১৯-০৩-১৭ ২১:২৪:২৫

Spread the love

রাত পোহালেই উত্তর চট্টগ্রামের পাঁচটি উপজেলায় ভোট। এ লক্ষে প্রস্তুত করা হয়েছে ৪৯৫টি ভোটকেন্দ্র। এবার পাঁচ উপজেলায় ১৩ লাখ ৬২ হাজার ১২২ ভোটার ভোট দেবেন।

সোমবার (১৮ মার্চ) উপজেলাগুলোতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলবে ভোটগ্রহণ।

পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপের তফসিল অনুযায়ী উত্তর চট্টগ্রামের সাত উপজেলায় ভোট হওয়ার কথা। তবে একক প্রার্থী হওয়ায় রাউজান ও মিরসরাইয়ে ভোট হচ্ছে না।

এ ছাড়া যে পাঁচ উপজেলায় ভোট হচ্ছে, তারমধ্যে শুধু ফটিকছড়িতে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন হবে। বাকী চার উপজেলায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন নৌকার প্রার্থীরা।

রোববার (১৭ মার্চ) সকালে হাটহাজারীর উপজেলায় একাধিক কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, কিছু কেন্দ্রে গোপন কক্ষ তৈরির কাজ চলছে। সকালেই ভোটগ্রহণের মালামাল কেন্দ্রে কেন্দ্র পৌছেছে।

দক্ষিণ ফতেপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা ও আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর উপস্থিতিতে কেন্দ্র গুছানোর কাজ চলছে।

কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং কর্মকর্তা জানান, ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে এবং সহজে ভোট দিতে পারেন, সে ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

জেলা নির্বাচন অফিস থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী, পাঁচ উপজেলায় ৪৯৫ জন প্রিসাইডিং, তিন হাজার ৪৪১ জন সহকারি প্রিসাইডিং এবং ছয় হাজার ৮৮২ জন পোলিং কর্মকর্তা ভোটগ্রহণের দায়িত্বে থাকবেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মুনীর হোসাইন খান বাংলানিউজকে বলেন, সব প্রস্তুতি শেষ। ভোটাররা যেন খুব সহজে ভোট প্রদান করতে পারেন, সে বিষয়ে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে (ঝুঁকিপূর্ন) দু’জন করে পুলিশ সদস্য, সাধারণ কেন্দ্রে একজন পুলিশ সদস্য এবং প্রতিকেন্দ্রে ১২ জন করে আনসার সদস্য দায়িত্বে থাকবেন।

‘নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবেন। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটরা দায়িত্বে থাকবেন। পাশাপাশি  র‌্যাব-পুলিশের একাধিক টিম নির্বাচনী এলাকায় টহলে থাকবে। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলো থাকবে প্রশাসনের নজরদারিতে।’

পাঁচ উপজেলায় যেসব প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন:

জেলা নির্বাচন অফিস থেকে প্রাপ্ত তথ্যমতে, হাটহাজারী উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে এমএ খালেদ চৌধুরী (বৈদ্যুতিক বাল্ব), উদয় কুমার সেন (তালা), মো. নুরুল আলম (মাইক), মোহাম্মদ কলিম (বই), মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন (উড়োজাহাজ), মোস্তফা আলম (টিউবওয়েল), এসএম জহির উদ্দিন চৌধুরী (চশমা), কাজী মো. আলাউদ্দিন (চেয়ার) এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাজেদা বেগম (হাঁস) ও মোক্তার বেগম (কলসি) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ফটিকছড়ি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করছেন নাজিম উদ্দীন মুহুরী (নৌকা), এইচ এম আবু তৈয়ব (আনারস) ও আবছার উদ্দীন (লাঙ্গল) প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে সৈয়দ জাহেদ উল্লাহ কুরাইশী (তালা), ইসমাঈল মজুমদার (উড়োজাহাজ), বিশ্বজিৎ রাহা (টিউবওয়েল), মুহাম্মদ ছালামত উল্লাহ চৌধুরী (বই), রতন কান্তি চৌধুরী (চশমা) এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে রাজিয়া মাসুদ (পদ্মফুল), জেবুন নাহার (প্রজাপতি) ও শারমিন আকতার (কলস) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

রাঙ্গুনিয়ায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে মো. ফয়জুল ইসলাম (উড়োজাহাজ), মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম (তালা), মো. আকতার হোসেন (মোমবাতি) ও মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন তালুকদার (টিয়া পাখি) প্রতীকে নির্বাচন করছেন।

সীতাকুণ্ডে ভাইস চেয়ারম্যান পদে গোলাম মহিউদ্দিন (উড়োজাহাজ), মো. ইউনুচ (মাইক), মো. মনিরুল ইসলাম (টিউবওয়েল), মোহাম্মদ আলাউদ্দিন সাবেরী (তালা) এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে কামরুন্নাহার (ফুটবল),বিবি জয়নাব (পদ্মফুল), রহিমা আক্তার ডলি (কলস) প্রতীকে নির্বাচন করছেন।

সন্দ্বীপে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেবুন নেছা (কলসি), মোছাম্মৎ ফরিদা বেগম (হাঁস), মোছাম্মৎ লুৎফুন্নাহার (ফুটবল) প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এই মুহূর্তে চট্টগ্রামে জড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হচ্ছে।
তীব্র গরমে অতিষ্ঠ হয়ে আছে সারাদেশের মানুষ। একটু মেঘ দেখলেই যেন সবার মনে শান্তি। শুধু
আজ ষষ্ঠ তারাবিতে সূরা আরাফের দ্বিতীয় রুকুর দ্বিতীয় আয়াত থেকে শুরু করে শেষ রুকু পর্যন্ত,
আহলান সাহলান, মোবারক হো মাহে রমজান। খোশ আমদেদ মাহে রমজান। পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal