, রোববার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

admin

আটক ভারতীয় নাগরিকরা এত অস্ত্র নিয়ে বাংলাদেশে কেন?

প্রকাশ: ২০১৯-০৫-১৫ ১৬:৩৮:১৭ || আপডেট: ২০১৯-০৫-১৫ ১৬:৩৮:১৭

Spread the love

নিউজ ডেস্কঃ গতকাল থেকে সোশ্যাল মিডিয়া অনেকে জানতে চেয়েছেন আটক ভারতীয় নাগরিকরা এত অস্ত্র নিয়ে বাংলাদেশে কেন?

তারা কি আইএসএসের হয়ে বড় কোন হামলায় অংশ নিতে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছিল?

নাকি কোন প্রতিষ্ঠানন উড়িয়ে দিতে এসেছিল? এইসব প্রশ্নের উত্তর হয়তো পুলিশই দিতে পারিবে, তবে পুলিশ বলছে তাদের রিমান্ডে নিয়ে মুল কাহিনী বের করা হবে।

সুত্রে প্রকাশ, গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা হলেন, ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের বিশালঘরের নেতাজি নগরের শ্যামল দেবনাথের ছেলে স্বর্ণজিৎ দেবনাথ (২৩), উত্তর ত্রিপুরার ধর্মনগরের রতি রঞ্জন চৌধুরীর ছেলে নির্মলেন্দু চৌধুরী (৩২) বাদারঘাটের সুনীল সরকারের ছেলে শংকর সরকার (৩১) ও আমতলীর রাজনগরের অবনী দাসের ছেলে বিমল দাস (৩৩)।

গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তিদের কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, চারটি গুলি, দুটি পাইপগান, দুটি কার্তুজ, দুটি ওয়াকিটকি, পাঁচ লিটার পেট্রোল, চার্জার, বুট জুতা, রেইনকোট ও হ্যান্ড গ্লাভসসহ বেশ কিছু জিনিস উদ্ধার করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া কসবা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আবদুল করিম জানান, গত কয়েকদিন ধরে কুটি বাজারের ‘মা প্লাজা’র ‘আলিফ হোটেলে’র ওপরে তিনতলার কক্ষে একসঙ্গে ছয়জন অবস্থান করছিলেন।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায় ওই কক্ষে অবস্থাকারীদের মধ্যে অস্ত্রসহ ভারতীয় নাগরিক রয়েছেন। পরে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা বড় ধরনের অপরাধ কর্মকাণ্ড ঘটাতে জড়ো হয়েছিলো কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে কসবা থানায় দুটি মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।

ভারতীয় সেনাদের বিরুদ্ধে এক কিশোরকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এই মারধরের জেরে বিষ খেয়ে ওই কিশোর
আবারও বর্ণবাদী পরিচয় দিল মার্কিন বিমান সংস্থা আমেরিকান এয়ারলাইনস। বিমানে দুজন মুসলিম যাত্রী থাকায় ক্রুরা
যুবলীগ নেতা এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীম ও তার সঙ্গপাঙ্গরা সরকারি
ক্ষমতা দখলের পর থেকে মিসরে সব ধরনের গণবিক্ষোভ নিষিদ্ধ করেছিলেন সামরিক শাসক আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি।
চট্টগ্রাম নগরীর ধনিয়াল পাড়ার বায়তুশ শরফ মাদ্রাসায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal