, শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০

Avatar admin

দগ্ধ হয়ে মারা যাওয়া তাবলীগ কর্মী রাজনের জানাজায় মানুষের ঢল

প্রকাশ: ২০১৯-০৬-১১ ১৮:২২:২৮ || আপডেট: ২০১৯-০৬-১১ ১৮:২২:২৮

Spread the love

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় নিহত আবদুর রহিম রাজনকে কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

ঢাকার কাকরাইল মারকাজ মসজিদে প্রথম জানাজার পর মঙ্গলবার সকাল ৯টা ১৫মিনিটে কটিয়াদী সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে রাজনের দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় বিভিন্ন স্থান থেকে আসা মুসল্লিরা অংশগ্রহণ করেন। জানাজার নামাজ শেষে রাজনকে কটিয়াদী কলা মহাল দরগাহ জামে মসজিদ সংলগ্ন স্থানে দাফন করা হয়। শেষবারের মত রাজনকে দেখতে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে মুসল্লিরা ছুটে আসেন।

কটিয়াদী সরকারি করবস্থানের প্রধান ফটক দিয়ে ঢুকে একটু বাম দিকে এগিয়ে গেলেই রাজনের কবর। মাত্র ২৭ বছর বয়সী রাজনের চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়। রাজনের জানাজায় তার আত্মীয়-স্বজন ছাড়াও বিভিন্ন স্তরের মুসল্লিরা অংশ নেন।

রাজনের লাশ দেখতে আত্মীয়-স্বজন ও বিভিন্ন পেশার মানুষ ভীড় করেন। এ সময় সেখানে আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

জানাজায় বক্তব্য রাখেন, কটিয়াদী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আবদুল ওয়াহাব আইন উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব লায়ন আলী আকবর, রাজনের মামা মাহমুদুল রশিদ নয়ন প্রমুখ। পরে রাজনের জানাজা নামাজে ইমামতি করেন কাকরাইল মসজিদের সাদ কমিটির পররাষ্ট্র বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা মুফতি আবদুল্লাহ৷।

উল্লেখ্য, গত ১৯ মে কতিপয় দুর্বৃত্ত রাত ১১ টার দিকে তার নিজ বাসা থেকে কটিয়াদী সাব রেজিষ্ট্রি অফিসের পিছনের গলিতে রাজনকে তরল দাহ্য পদার্থ ঢেলে পুড়িয়ে মারাত্নক আহত করলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসারত অবস্থায ২২ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে গত সোমবার দুপুরে হাফেজ আঃ রহিম রাজন মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। সূত্রঃ নয়া দিগন্ত।

Logo-orginal