, সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯

admin

যারা ৭ জুনকে অস্বীকার করেন, তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধীঃ কাদের

প্রকাশ: ২০১৯-০৬-০৭ ১৩:১৮:১৭ || আপডেট: ২০১৯-০৬-০৭ ১৩:১৮:১৭

Spread the love

স্বাধীনতার আন্দোলনে ৭ জুন (ছয় দফা দিবস) ‘টার্নিং পয়েন্ট’ ছিল বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, যারা ৭ জুনকে অস্বীকার করেন, তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী নয়।

শুক্রবার রাজধানীর ধানমণ্ডিতে ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবসে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের এ সময় বলেন, ৭ জুন আমাদের স্বাধীনতার পথে ঐতিহাসিক এক মাইলফলক। এদিন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছয় দফা ঘোষণা করেন। তার ঘোষিত ঐতিহাসিক ছয় দফার লক্ষ্যই ছিল স্বাধীনতার মূলমন্ত্র। এ জন্য স্বাধীনতার আন্দোলনে ৭ জুন ছিল ‘টার্নিং পয়েন্ট’।

মনু মিয়াসহ যেসব শহীদ সেদিন আত্মদান করে গেছেন, তাদের শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ৭ জুনের পথ ধরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। আর আজ আমাদের মুক্তির সংগ্রামের কাণ্ডারি বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি শোষণ ও দারিদ্র্য মুক্তির মধ্য দিয়ে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, যারা এই দিবসটিকে অস্বীকার করেন, তারা মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধ ও চেতনাকে বিশ্বাস করে না।

প্রসঙ্গত ১৯৬৬ সালের ৭ জুন বাঙালির মুক্তির সনদ ঐতিহাসিক ছয় দফা ঘোষণা করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ছয় দফার ভিত্তিতেই পরবর্তী সময়ে ঊনসত্তরের গণবিস্ফোরণ এবং ১১ দফা আন্দোলন। এর পর ১৯৭০ সালের নির্বাচন ও ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ রেসকোর্স ময়দানে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষণ। আর এই ভাষণের মধ্য দিয়েই মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা অর্জন।

ছয় দফা দিবসে আজ সকালে ধানমণ্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য মতিয়া চৌধুরী, কর্নেল (অব.) ফারুক খান, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, মহিলাবিষয়ক সম্পাদক ফরিদুননাহার লাইলী, বন ও পরিবেশবিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য আখতারুজ্জামান ও আমিরুল আলম মিলন, যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী প্রমুখ।উৎসঃ যুগান্তর ।

ক্রীড়া ডেস্কঃ ফের ব্যর্থ পাক ক্রিকেট টীম, হতাশ পাকিস্তান সাপোর্টরার। কাঁদতে কাঁদতে স্টেডিয়াম ছেড়েছে অনেকে।
সংসদে কথা বলার জন্য দাঁড়ালেই সরকারদলীয় ৩০০ এমপি উত্তেজিত হয়ে ওঠেন বলে দাবি করেছেন বিএনপির
নিউজ ডেস্কঃ কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল তানি ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব
ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে ট্রাক্টর ও বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে এক চালক নিহত হয়েছে । নিহত ট্রাক্টরের চালকের
এবারের বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার পর থেকেই বৃষ্টির বাগড়া। বৃষ্টির কারণে চারটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছে। ভারত-পাকিস্তান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal