, রোববার, ২১ জুলাই ২০১৯

jamil Ahamed

নির্যাতনের পর ‘গো মাতা কি জয়’ স্লোগান দিতে বাধ্য করা হলো মুসলিমদের

প্রকাশ: ২০১৯-০৭-০৮ ১৭:১২:৪৪ || আপডেট: ২০১৯-০৭-০৮ ১৭:১২:৪৪

Spread the love

নিউজ ডেস্কঃ হাটে পশু নিয়ে যাওয়ার সময় ভারতের মধ্যপ্রদেশের খান্ডা জেলায় একদল মানুষকে বেদম মারপিট করেছে গরু রক্ষাকারীরা। তাদেরকে রশি দিয়ে টাইট করে বেঁধে রাখা হয়। হাঁটুগেঁড়ে রাস্তার ওপর অবস্থান করানো হয়। বাধ্য করা হয় ‘গো মাতা কি জয়’ স্লোগান দিতে। এমন একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে।

এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি। এতে বলা হয়, মহারাষ্ট্রের পশু কেনাবেচার একটি মেলা আয়োজন করা হয়েছে। ২৪ জনের একদল পুরুষ ওই মেলায় পশু নিয়ে যাচ্ছিলেন।

তাদের মধ্যে ছিলেন খান্ডা, সিহোরে, দেবাস ও হারডা জেলার লোকজন। ওই ২৪ জনের মধ্যে ৬ জন ছিলেন মুসলিম।

কিন্তু রোববার তারা গরু বিষয়ক নজরদারিকারীদের কবলে পড়েন। তাদের ওপর যে নির্যাতন চালানো হয় তা ধারণ করা হয়েছে একটি মোবাইল ফোনে। এতে দেখা যায়, সাদা শার্ট পরা একজন ওইসব ব্যক্তির খুব কাছে চলে যান মোবাইল ফোন হাতে, যাতে তাদের মুখ পরিষ্কারভাবে ভিডিওতে বোঝা যায়। ছবি যাতে পরিষ্কার আসে।

এ সময় কমপক্ষে দু’জন রশি দিয়ে বেঁধে রাখা লোকজনকে পাহারা দিতে থাকে। বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের রিপোর্ট অনুসারে ওই এলাকায় গরু রক্ষা বিষয়ক নজরদারিকারীদের ১০০ সদস্য আছে। তারা সাভালিকেড়া গ্রামের। ওইসব ভিজিল্যান্টিরা অভিযোগ করেছে, এসব মানুষ ২০টি গবাদিপশুকে জবাই করার জন্য স্থানান্তর করছিল। এ জন্য তাদের ওপর শক্তি প্রয়োগ করা হয়েছে। তাদেরকে বেঁধে ফেলা হয়েছে।

তারপর তাদেরকে ফেরত যাওয়ার পথে খালওয়া পুলিশ স্টেশনের সামনে দিয়ে প্যারেড করানো হয়েছে। জেলা পুলিশ সুপারিনটেন্ডেন্ট শিবদয়াল সিং বলেছেন, ওইসব মানুষ গবাদিপশু নিজেদের বলে দাবি করেন। কিন্তু তারা তাদের এ দাবি প্রমাণ করতে পারেন নি। ২৪ জনের মধ্যে একজনও তাদের দাবির পক্ষে প্রমাণ দেখাতে পারেন নি। তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে গো রক্ষাকারী ওইসব ব্যক্তির বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয় নি। উৎসঃ মানবজমিন ।

ইয়েমেনের লড়াইয়ের শুরুটা হয় আরব বসন্ত দিয়ে, যার মাধ্যমে আসলে দেশটিতে স্থিতিশীলতা আসবে বলে মনে
সৌদি আরবে সেনা মোতায়েন করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইতিমধ্যে সৌদিতে সেনা ও সরঞ্জাম
বরগুনার চাঞ্চল্যকর রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী ও নিহত রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নির
মাদারীপুরে দশম শ্রেণির মাদ্রাসাছাত্রী দীপ্তি আক্তার হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাজ্জাদকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। শনিবার
আসিফ ইকবাল ( চট্টগ্রাম প্রতিনিধি)ঃ নিঃস্বার্থ ভালোবাসার বিরল উদাহরণ আব্বাস উদ্দীন, জনপ্রতিনিধি না হয়ে ও

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal