, বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯

admin

উত্তর রাঙ্গুনিয়ার কামারপট্টি টুং টাং শব্দে মুখরিত

প্রকাশ: ২০১৯-০৮-১১ ১৫:১৩:৩১ || আপডেট: ২০১৯-০৮-১১ ১৫:১৪:০১

Spread the love

ইসমাঈল হোসেন নয়ন, রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধিঃ রাত পেরুলেই ঈদুল আযহা। এরই মধ্যে কোরবানীর পশুর হাটও জমে উঠেছে। কেউ পশু কেনায় ব্যস্ত কেউবা আবার কামারের দোকানে ছুটছেন পশু জবাই করার ছুরি, চাপাতি, বটি কিনতে। চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার উত্তর রাঙ্গুনিয়া এলাকার কামারের দোকানগুলোতে যেন দম ফেলার সময় নেই কারিগরদের। একই অবস্থা উপজেলার অন্যান্য কামার কারিগরদেরও।

ঐতিহ্যবাহী ধামাইরহাট বাজার ঘুরে দেখা যায়, কামারপট্টি গুলোতে বেশ ভিড়। কারিগরদের যেন দম ফেলার সময় নেই। এ বাজারে এসব জিনিস প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান রয়েছে ৭টি। এসব প্রতিষ্ঠান খুচরা ও পাইকারি দু’ভাবেই পণ্য বিক্রি করে।

দোকানিরা জানান, পশু জবাই করার জন্য বড় ছুরিগুলো পাওয়া যাবে ৬০০ থেকে এক হাজার টাকার মধ্যে। চামড়া ছাড়ানোর ছুরি বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১৫০ টাকায়। ডিজাইন ও কাঁচা মালের তারতম্যে পছন্দ অনুযায়ী জিনিসের দাম কম-বেশি হতে পারে। মাংস কাটা চাপাতির দাম (কোপা) ৩৫০ থেকে শুরু করে ৫০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে। ভালো মানের চাপাতি (স্প্রিং বা কাচা লোহা) ৫৫০ থেকে ৮৫০ টাকায় কেজি বিক্রি হচ্ছে।

দোকানিরা আরো জানান, দেশি চাপাতিগুলো মূলত কেজি হিসেবে বিক্রি হয়ে থাকে। প্রতি কেজি ওজনের চাপাতির দাম ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। এছাড়া বিদেশি চাপাতির দাম ৭০০ থেকে দুই হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়। এবার প্রতিটি বটি বিক্রি হচ্ছে ১৫০ থেকে ৮০০ টাকা।

শাহজাহান নামে এক ব্যক্তি গরু কেনা শেষ করে এখন এসেছেন আনুষাঙ্গিক সরঞ্জাম কিনতে। তিনি জানান, ছুরি-চাপাতির দাম খুব চড়া। একটা চাপাতির দাম ৭শ’ টাকা রাখছে।

সমিলন কর্মকার নামে এক ব্যবসায়ী জানান, এ শিল্পের প্রধান উপাদান লোহা আর কয়লার দাম বেড়ে গেছে। আবার কারিগরদের মজুরিও বাড়তি। তাই আগের তুলনায় দাম একটু বেশি।

কক্সবাজারের চকরিয়ায় ৭ম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক কিশোরী মাদ্রাসা ছাত্রীকে অপহরণের দেড় ঘণ্টার মধ্যে জনতার সহায়তায়
আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে রোহিঙ্গা গণহ’ত্যার শুনানির একপর্যায়ে গাম্বিয়ার আইনমন্ত্রী আবুবকর মারি তামবাদু বলেছেন, কেবল মিয়ানমারই
সমকালীন বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় তরুণ মুফাসসির ও ইসলামী স্কলার মাওলানা মিজানুর রহমান আযহারী বুড়িচংয়ে অাসছে
কেরানীগঞ্জ-এর চুনকুটিয়ায় প্লাস্টিক ফ্যাক্টরীতে আগুন লেগে মারাত্মকভাবে দগ্ধ ৩২ জন রোগী বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ
বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করে দিল আপিল বিভাগ। কিছুক্ষণ আগে এমন আদেশ দেয়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal