, রোববার, ৯ আগস্ট ২০২০

Avatar admin

আফিফের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে হতাশার ম্যাচে বাংলাদেশের দারুণ জয়

প্রকাশ: ২০১৯-০৯-১৪ ০১:২০:৩৯ || আপডেট: ২০১৯-০৯-১৪ ০১:২০:৩৯

Spread the love

আফিফের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে হতাশার ম্যাচে বাংলাদেশের দারুণ জয় । দলীয় ৬০ রানের মাথায় সাব্বির রহমান আউট হবার সাথে সাথেই মাঠে থাকা দর্শকদের মধ্যে নিরবতা দেখা যায়। কারন এসময় উইকেট হারিয়েছিল ৬টি। মনে হচ্ছিল হেরে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

এসময় মাঠে নামে আফিফ হোসেইন। তার ঝড়ো ব্যাটিং এ আবার মাঠে উত্তেজনা দেখা দেয়। মারমুখি ব্যাটিং এ থতমতো খেয়ে যায় জিম্বাবুয়ে। পর পর কয়েকটি বাউন্ডারিতে দর্শক ফিরে পায় প্রাণ। দেখতে শুরু করেছিল জয়ের স্বপ্ন। মাত্র ২৪ বলে ৫০ রান পূর্ন করে আফিফ। এর পর ব্যাক্তিগত ৫২ রানে ফিরে যায় আফিফ। আবার নিরবতা।

এর পর সত্যি অধরা জয় ধরা দেয়া বাংলাদেশের। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে প্রথম খেলায় প্রথম জয় পেল বাংলাদেশ। এক কথায় বলা জায় আফিফের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ এই জয় লাভ করে।

টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা যখন ব্যাট হাতে ব্যার্থ তখন জ্বলে উঠে হার্ড হিটার ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান ও সাইলেন কিলার খ্যাত মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দলীয় ২৯ রানে যখন ৪ উইকেট হারিয়ে সাফরকারী জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ধুঁকতে ছিলো টাইগারা। সেই বির্পযয় থেকে রানের চাকা সচল করে এই দুই ব্যাটসম্যান। তাদের ব্যাটিং নৈপুণ্যে এগুতে থাকে বাংলাদেশ কিন্তু দলীয় ৫৬ রানে আবারও ছন্দ পতন হয়।

রায়ান ব্রুলের বলে এলবিডব্লিউ ফাদে পরে সাজঘরে ফিরে যায় মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। রিভিউ নিয়েও শেষ রক্ষা হয়নি এই ব্যাটসম্যানের। কিছু পরেই আবারও টাইগার শিবিরে রায়ান ব্রুলের আঘাত এবার তার শিকার সাব্বির রহমান। বাউন্ডারির থেকে দূর্দান্ত ক্যাচ নেন নেভিল মাদজিভা। তবে মাঠে নেমেই চমক দেন দুই তরুন ক্রিকেটার মোসাদ্দেক হোসেন ও আফিফ হোসেন। মূলত এই দুই ব্যাটসম্যানের ব্যাটিং নৈপুণ্যে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

ইনিংসের শুরুতে ২৬ রানে টেন্ডাই চাতারার বলে সরাসরি বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যায় লিটন কুমার দাস। আউট হওয়ার আগে এই ব্যাটসম্যান করেন ১৪ বলে ১৯ রান। এরপর সোউম্যকে সঙ্গ দিতে ক্রিজে আসেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। তবে ইনিংস বড় করতে ব্যার্থ ছিলো সৌম্য। কাইল জারভিসের বলে নেভিল মাদজিভাকে ক্যাচ দিয়ে ৭ বলে ৪ রান করে সাজঘরে ফিরে যায় সৌম্য সরকার। #সংগৃহীত।

Logo-orginal