, মঙ্গলবার, ২ জুন ২০২০

Avatar admin

মুক্তিযোদ্ধা বাবার কবরের ওপর টয়লেট নির্মাণ করল কাস্টমস কর্তা ছেলে

প্রকাশ: ২০১৯-১০-১৪ ০৮:৩৯:১১ || আপডেট: ২০১৯-১০-১৪ ০৮:৩৯:১১

Spread the love

বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলায় মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সাত্তারের কবরের ওপর টয়লেট নির্মাণ করেছেন তারই ছেলে কাস্টমস কর্মকর্তা আবদুর রউফ।

দুদিন আগে উপজেলার বারুনিঘাট এলাকায় বাবার কবরের ওপর এই শৌচাগার নির্মাণের কাজ শুরু করে ছেলে। অবশ্য রোববার বিকেলে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা কবরের প্রাচীরের ওপর শৌচাগারের জন্য নির্মাণ করা প্রাচীর ভেঙে দিয়েছেন।

পরিবারের সদস্যরা জানান, মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সাত্তার ২০১৭ সালে মারা গেলে তার ১২ শতক জমি দুই ছেলে ও দুই মেয়ে ভাগ করে নেন।

বড় ছেলে আসাদ খান মুনির জানান, পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ম মাফিক ভাগাভাগি হলেও নিজের অংশ নিয়ে তার ছোটভাই কাস্টমস ইন্সপেক্টর আবদুর রউফ শুরু থেকেই সংক্ষুব্ধ ছিলেন। এর জেরে সম্প্রতি তিনি বাবার কবরের প্রাচীরের ওপর থেকে প্রাচীর তুলে শৌচাগার নির্মাণের কাজ শুরু করেন। বিষয়টি জানার পর পরিবারের সবাই বাধা দিলেও রউফ তাতে কর্ণপাত করেননি।

স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা হযরত আলী জানান, মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সাত্তারের কবরের ওপর টয়লেট নির্মাণ করা হচ্ছে-তার পরিবারের সদস্যরা এই তথ্য জানালে রোববার স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধারা সেখানে গিয়ে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হন। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানালে তিনি কবরের ওপর তোলা টয়লেটের প্রাচীর ভেঙে ফেলার নির্দেশনা দেন। সন্ধ্যায় স্থানীয়রা প্রাচীরটি ভেঙে ফেলেছেন।

মুক্তিযোদ্ধা বাবার কবরের ওপর টয়লেট নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া আবদুর রউফ দাবি করেন, জমি-জমা ভাগাভাগির সময় কবরের জায়গাটা তার ভাগেই পড়েছে। কিন্তু তিনি কবর দখল করে কিছু করছেন না। সমস্যা যা হয়েছিলো তা স্থানীয় বয়োজ্যেষ্ঠ আর মুক্তিযোদ্ধারা রোববার সন্ধ্যায় সমাধান করে দিয়েছেন বলেও জানান তিনি। সুত্রঃ যমুনা নিউজ।

Logo-orginal