, বুধবার, ২৭ মে ২০২০

Avatar admin

যুবরাজ সালমান ও নায়িকা লিন্ডসের প্রেমের রসায়ন” সোশ্যাল মিডিয়ায় ধিক্কার”

প্রকাশ: ২০১৯-১১-০১ ০৬:৩৭:৪৮ || আপডেট: ২০১৯-১১-০১ ০৬:৩৭:৪৮

Spread the love

সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে মার্কিন অভিনেত্রী ও গায়িকা লিন্ডসে লোহানের সম্পর্ক নিয়ে বেশ তোলপাড় চলছে।

তাদের এমন অনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে ক্ষুব্ধ মুসলমানরা, ইসলামী শাসনের দাবীদার সৌদি সউদ পরিবার এখন কি জবাব দেবে? এমন মন্তব্য করে একজন আরব নাগরিক তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

এমন হাজারো প্রশ্ন ও মন্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যামে, এমন খবর প্রকাশিত হয়েছে মিডল ইস্ট মিররে।

মোহাম্মদ বিন সালমান আর মার্কিন গায়িকার প্রেমের রসায়নটা আসলে কেমন এমন প্রশ্ন হরহামেশাই উঠছে। তবে তাদের এই সম্পর্ক নিয়ে তারা দুজন নয় মুখ খুলেছেন লিন্ডসের বাবা। তিনি বলছেন, তাদের মধ্যে সম্পর্কটা শুধুই বন্ধুত্বের।

যুবরাজ সালমানের সঙ্গে মার্কিন তারকা লিন্ডসের সম্পর্ক নিয়ে নানা গুঞ্জন বিভিন্ন সময়ে শোনা গেছে। যুক্তরাষ্ট্রসহ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোর দাবি, সৌদি আরবের প্রকৃত নেতার (ডি-ফ্যাক্টো) সঙ্গে লিন্ডসের সম্পর্ক শুধু বন্ধুত্বের নয়। তাদের মধ্যে প্রণয়ের সম্পর্কও বিদ্যমান।

তবে শুধু গুঞ্জন আর গণমাধ্যমের জল্পনা কল্পনা নয় বিভিন্ন সময়ে অভিনেত্রী ও গায়িকা লিন্ডসে লোহানকে ক্রেডিট কার্ডসহ নানা উপহার সামগ্রী পাঠিয়ে সেই গুঞ্জনকে আশকারা দিয়েছেন স্বয়ং যুবরাজ বিন সালমান। তবে উভয় পক্ষ এমন দাবি প্রত্যাখান করেছেন।

মার্কিন অভিনেত্রী ও গায়িকা লিন্ডসে লোহানের সঙ্গে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের মধ্যে কোনো প্রণয়ের সম্পর্ক নেই এমন দাবি করে গত আগস্টে মার্কিন তারকার এক প্রতিনিধি জানান আর্ন্তজাতিক গণমাধ্যমে প্রচারিত এসব খবর ভিত্তিহীন এবং বানোয়াট।

তবে লিন্ডসে লোহানের সেই প্রতিনিধির বক্তব্য সালমানের সঙ্গে তার সম্পর্কের রসায়ন নিয়ে গুঞ্জন থামাতে পারেনি। অবশেষে লিন্ডসে লোহানের বাবা মাইকেল লোহান মুখ খুললেন। তিনি বলেছেন, তারা শুধুই বন্ধু। কোনো প্রণয়ের (রোমান্টিক) সম্পর্কে নেই তারা। এতে কোনো কামনা-বাসনা নেই।

গতকাল বুধবার ব্রিটিশ দৈনিক ইনডিপেনডেন্টের অনলাইন প্রতিবেদনে জানানো হয়, লিন্ডসের বাবা মাইকেল লোহান বলেছেন, আমার মেয়ের সঙ্গে সৌদি যুবরাজের কোনো প্রণয়ের সম্পর্ক নেই। তবে সম্পর্ক একটি রয়েছে। একে বলে শ্রদ্ধার সম্পর্ক। তারা একে অপরের বন্ধু মাত্র (জাস্ট ফ্রেন্ড)।

আরেক মার্কিন দৈনিক নিউইয়র্ক পোস্টের কাছেও একই দাবি করেন মাইকেল লোহান। তিনি জানান, তার মেয়ের সঙ্গে সৌদি যুবরাজের কোনো ধরনের রোমান্টিক সম্পর্ক নেই। মধ্যপ্রাচ্যে লিন্ডসের যাতায়াত বেশি। তাই সেখানে তার অনেক ভালো বন্ধু রয়েছেন, তাদের মধ্যে সৌদি যুবরাজ অন্যতম।

তিনি গণমাধ্যমের প্রতি তার ক্ষোভ ঝেড়ে বলেন, ‘আমার মেয়ে মধ্যপ্রাচ্যে বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজ বিশেষ করে শরণার্থীদের সহায়তায় কাজ করছেন তা নিয়ে তো কেউ লিখছে না। সবাই শুধু আমার মেয়ের সঙ্গে সৌদি যুবরাজকে জড়িয়ে মুখরোচক গল্প বানাচ্ছে।’

গত বছর যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত সৌদি সাংবাদিক ও কলাম লেকক জামাল খাসোগি হত্যায় যুবরাজের সম্পৃক্ততার অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে মাইকেল লোহান বলেন, ‘এখন পর্যন্ত তো কোনো কিছুই প্রমাণিত হয়নি। আমার মেয়ে লিন্ডসে আমাকে বলেছে, মোহাম্মদ বিন সালমান একজন ভালো মানুষ।

Logo-orginal