, সোমবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯

admin

স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের মাইলফলক শহীদ নূর হোসেনকে ইয়াবাখোর” বলে ফেঁসে গেলেন রাঙ্গা

প্রকাশ: ২০১৯-১১-১১ ২১:০৩:২৪ || আপডেট: ২০১৯-১১-১১ ২১:০৩:২৪

Spread the love

ঢাকাঃ স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে পুলিশের গুলিতে নিহত শহীদ নূর হোসেনকে ‘ইয়াবাখোর’, ও‘ফেনসিডিলখোর’বলে ফেঁসে গেলেন জাতীয় পার্টির (জাপা) মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা।

তাকে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে নানা মহলে। এবার নূর হোসেনের মা মরিয়ম বিবিসহ পরিবারের সদস্যরা রাঙ্গার বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন। মরিয়ম বিবি রাঙ্গাকে জনগণের কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

সোমবার (১১ নভেম্বর) বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে রাঙ্গার বক্তব্যের প্রতিবাদে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে নূর হোসেনের পরিবার। সেখানে তার মা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘নূর হোসেন আমার একার ছেলে না, সে জনগণের ছেলে। সে জনগণের ছেলেকে নেশাখোর বলছে। সে যদি নেশাখোর হতো, তাহলে দেশের জন্য জান দিতে পারতো না। আমি জনগণের কাছে বিচার চাই, আল্লাহর কাছে বিচার চাই।’

প্রসঙ্গত, রোববার জাতীয় পার্টির ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার এক অনুষ্ঠানে নূর হোসেন ‘ইয়াবাখোর’, ‘ফেনসিডিলখোর’ ছিলেন বলে বক্তব্য দেন রাঙ্গা। এরপর থেকেই সমালোচনার ঝড় বইছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও রাঙ্গার বিচার চেয়েছেন সাধারণ জনগণ। তবে এ বিষয়ে রাঙ্গা আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো মন্তব্য বা বিবৃতি পাওয়া যায়নি।

জনগণের কাছে রাঙ্গাকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে অশ্রুসিক্ত কণ্ঠে নূর হোসেনের মা বলেন, ‘আমার ছেলে বুকে-পিঠে লেখে রাজপথে নামলো দেশের জন্য, জনগণের জন্য। কীসের জন্য নামলো? ও কি পাগল ছিল, ওর কি জ্ঞান, বিচার ছিল না? আজ ৩০ বছর পরে ওরে নেশাখোর বলা হলো। আমি এ বিচারের দায়ভার জনগণের ওপর ছেড়ে দিলাম। জনগণের কাছে তাকে (মসিউর রহমান রাঙ্গা) ক্ষমা চাইতে হবে।’

রাঙ্গার বিরুদ্ধে মামলা করবেন কি-না এ প্রশ্নের জবাবে মরিয়ম বলেন, ‘আমি আমার ছেলেকে বলেছি, মামলা করা উচিত। আমি মামলা করতে রাজি আছি।’#সংগৃহীত।

জাকাত দিলে কোনো মুসলিম দেশে দরিদ্র থাকত না বলে মন্তব্য করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ
ফেনী-ছাগলনাইয়ার ঘোপালে বালু মহালকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে মোঃ সিরাজ (৩৬) নামে এক
আমিরাতের শারজায় ঘুমন্ত অবস্থায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামের প্রবাসী মোহাম্মদ জাহেদুল আলম (৪৫) মৃত্যুবরণ করেছেন।
বরিশালের বানারীপাড়ায় একই পরিবারের ৩ জনকে হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে দুইজনকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুক, ইমো, হোয়াটস অ্যাপ) নোয়াখালী সরকারি মহিলা কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির দুই ছাত্রীর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal