, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০

Avatar admin

দিল্লির জামেয়ার ছাত্রদের ফাঁসাতে বাসে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে পুলিশ, ভারত জুড়ে তোলপাড় (ভিডিও)

প্রকাশ: ২০১৯-১২-১৬ ১২:৩৪:২৬ || আপডেট: ২০১৯-১২-১৬ ১২:৩৮:১২

Spread the love

ভারতের দিল্লিতে ছাত্র-পুলিশ সংঘর্ষ চলাকালীন বাসে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার ভয়াবহ অভিযোগ উঠেছে দিল্লি পুলিশের বিরুদ্ধে।

পরিস্থিতি যাতে আরও অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে এবং জামিয়া ইসলামিয়ার ছাত্রদের ফাঁসাতে এমন ন্যাক্কারজনক ফাঁদ ফাঁদে বলে মনে করছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

বাসে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে পুলিশই, এমন চাঞ্চল্যকর অভিযোগ উঠে আসছে। শুধু তাই নয়, ওই দাবির সপক্ষে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একটি বাসে কেরোসিনের জার থেকে কিছু তরল ছিটিয়ে দিচ্ছেন এক পুলিশ কর্মী। জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে বিক্ষোভের সময় সময় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ বাঁধে।

রোববার (১৫ ডিসেম্বর) সন্ধ্য়ায় বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে দেশের রাজধানী। দক্ষিণ দিল্লির নিউ ফ্রেন্ডস কলোনি অঞ্চলে নতুন নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতাকারী সহিংস বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ বাঁধলে এলাকাটি যুদ্ধক্ষেত্রের রূপ পায়। কিন্তু এই ঝামেলা চলাকালীন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয় ওই ভিডিও যা দেখে দিল্লি পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

এই ঘটনার বিষয়ে দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া সহ অনেকেই অভিযোগ করছেন যে পুলিশেরই কিছু কর্মী এই ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগের ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে। যদিও পুলিশের তরফ থেকে এই ধরণের সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে দিল্লি, অসম, মেঘালয়, ত্রিপুরা, পশ্চিমবঙ্গ সহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় চলছে প্রতিবাদ বিক্ষোভ। ওই আইনের ফলে পাকিস্তান, আফগানিস্তান এবং বাংলাদেশ থেকে ভারতে বসবাসরত ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব লাভে সুবিধা হবে।

Logo-orginal