, রোববার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

admin

বর্ণাঢ্য আয়োজনে বান্দরবানে ৭ দিনব্যাপী অভিন্ন বই মেলার উদ্বোধন

প্রকাশ: ২০১৯-১২-০১ ০৯:১০:৩৫ || আপডেট: ২০১৯-১২-০২ ০০:০৩:৪৮

Spread the love

এম.রিয়াজ উদ্দিন :(বিশেষ প্রতিনিধি) বান্দরবান জেলা প্রশাসন চত্বরে ৭ দিনব্যাপী অভিন্ন বই মেলার শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।

৩০ নভেম্বর (শনিবার) বিকেলে বান্দরবান জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে উদ্বোধন হওয়া এই অভিন্ন বই মেলার আয়োজন করেন জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্র, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও বান্দরবান পার্বত্য জেলা প্রশাসন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বান্দরবানের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ দাউদুল ইসলাম।
প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, ডিজিটাল বান্দরবানের রূপকার, বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।

এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোঃ আব্দুল মান্নান ইলিয়াস এবং অসীম কুমার দে, জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক মিনার মনসুর।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, বান্দরবান আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ, বান্দরবান সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ,কে,এম জাহাঙ্গীর, বান্দরবানের পুলিশ সুপার মোঃ জাকির হোসেন মজুমদার, বান্দরবান জেলা অাওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোজাম্মেল হক বাহাদুর সহ বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, সামাজিক রাজনৈতিক এবং বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

পরে অতিথিবৃন্দরা বই মেলার স্টল গুলো পরিদর্শন করেন।

মেলায় ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাস, গল্প, কবিতা ও বিভিন্ন ইতিহাস ও ঐতিহ্যের বই স্থান পেয়েছে।
মেলায় স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীর সমাগম ছিলো লক্ষণীয়।

উল্লেখ্য, আগামী ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত ৭দিনব্যাপী এই বইমেলা প্রতিদিন বিকেল থেকে রাত ৯টাপর্যন্ত চলবে।
এবং প্রতিদিন সন্ধ্যায় থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং বলেন,
জ্ঞান ভিত্তিক সমাজ বিনির্মাণে বই পড়ার কোনো বিকল্প নেই। এবং মানুষের মাঝে জ্ঞানের আলো জ্বালাতে অবশ্যই বই পড়তে হবে। বই পড়লে জ্ঞান বৃদ্ধি পায়, তাই আমাদের সকলের উচিত বেশি বেশি বই পড়া।

নিউজ ডেস্কঃ কাল ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ সাল, মহান বিজয় দিবস। ত্রিশ লাখ শহীদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে
কাশ্মীরের লাইন অব কন্ট্রোলে (এলওসি) পাকিস্তান-ভারতের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনায় দুই ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছে। এসময়
অশান্তি হবে জানা ছিল। কিন্তু এ ভাবে বিক্ষোভের আগুন স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে গোটা অসমে ছড়িয়ে যাবে
চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় রাত নামলেই বাড়ে বন্য হাতির আতঙ্ক,ঘুমহীন এলাকাবাসীর রাত কাটে আতংকিত অবস্থায়। অথচ নীরব
রাকিবউদ্দিন, বিনোদন ডেস্কঃ বেঁধে রাখা, সেতো বাঁধা নয়, সময়ের অনুভূতি ও চিন্তাগুলো ক্যামেরার ফ্রেমে বন্দি.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal