, মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০

Avatar admin

সৌদিতে মৃত্যুর তিনমাস পর আবিরনের ম’রদেহ আসল দেশে” কিছুই জানেনা স্বজনরা

প্রকাশ: ২০১৯-১২-০২ ২৩:০২:৪৩ || আপডেট: ২০১৯-১২-০২ ২৩:০২:৪৩

Spread the love

চোখভরা স্বপ্ন আর হাতের মুঠোয় জীবন নিয়ে পরিবার ছেড়ে অচেনা দেশ সৌদি আরবে গিয়েছিলেন খুলনার মেয়ে আবিরন। সেখানে গৃহকর্মীর কাজ নিয়েছিলেন তিনি। দুই বছর আগে যখন আবিরন সৌদিতে গিয়েছিলেন তখন তার মাথায় ঘুরছিল পরিবারের নিরাপ’ত্তার কথা। কারণ প্রথমে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েও তিনি যাত্রা বাতিল করেছিলেন।

কিন্তু রিক্রুটিং এজেন্সির হু’মকি ও চাপের মুখে শেষ পর্যন্ত তাকে যেতেই হয়। তখন কি কেউ ভেবেছিল দু’বছর পর ক’ফিনে ব’দ্ধ লা’শ হয়ে তাকে ফিরতে হবে জন্মভূমিতে?

বৃহস্পতিবার সকালে আবিরনের লা’শ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গ্রহণ করেন পরিবারের সদস্যবৃন্দ। এই অ’ভাগা মানুষগুলো আবিরনের মৃ’ত্যুর খবরও সঙ্গে সঙ্গে জানতে পারে নি। আবিরন মৃ’ত্যুবরণ করার ৫১ দিন পর তারা এই খবর জানতে পারে আর তিনমাস পর ম’রদেহ বাংলাদেশে আসে।

আবিরনের মৃ’ত্যুর কারণ নিয়েও তৈরী হয়েছে ধোঁয়াশা। সৌদি আরব থেকে দেয়া ডে’থ সা’র্টিফিকেটে মৃ’ত্যুর কারণ লেখা আছে হ’ত্যা, কিন্তু আবিরনের রিক্রুটিং এজেন্সি ফাতেমা এমপ্লয়মেন্ট সার্ভিসেস বলছে আবিরন সড়ক দু’র্ঘটনায় মা’রা গিয়েছে। পরিবারের সদস্যদের অ’ভিযোগ, আবিরনের মালিকই নি’র্যাতন করতে করতে তাকে হ’ত্যা করেছে।

তারা দাবি করছেন, এই দুই বছরে আবিরনকে কোনো বেতন দেয়া হয় নি। প্রথম থেকেই আবিরনের ওপর নি’র্যাতন চালানো হত। বারবার অনুরোধ করার পরও কেউ এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয় নি।

Logo-orginal