, শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

Avatar admin

নতুন মোবাইল নিয়ে বাড়ি ফেরা হলো না দুই বন্ধুর

প্রকাশ: ২০২০-০১-১৭ ১৯:৪১:২৫ || আপডেট: ২০২০-০১-১৭ ১৯:৪১:২৫

Spread the love

ইসমাঈল হোসেন নয়ন,রাঙ্গুনিয়াঃ বিদেশ যাওয়ার সময় বড় ভাইয়ের কাছে আবদার করেছিল যেন একটি ভাল মোবাইল দেয় ছোট ভাই মো. গিয়াসকে (১৭)।

তার বড় ভাই মোস্তফাও ওমানে গিয়ে মাসের প্রথম বেতন থেকেই ছোট ভাইয়ের জন্য পাঠিয়ে দেন একটি দামি মোবাইল। চট্টগ্রাম শহরের ওমান ফেরত প্রবাসীর কাছ থেকেই সেই মোবাইল আনতে গিয়েছিল গিয়াস সহ তাঁর অপর বন্ধুরা।

কিন্তু সেই শখের মোবাইল নিয়ে আর বাড়ি ফেরা হলো না দুই বন্ধুর। তার আগেই মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারায় তাঁরা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কাপ্তাই সড়কের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার জিয়ানগর এলাকায় এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটে। চলন্ত বাসের ছাদে করে ফেরার পথে সড়কের উপর হেলে পড়া একটি গাছের সাথে ধাক্কা খেয়ে মর্মান্তিক মৃত্যু হয় তাঁদের। এই ঘটনায় আহত হয় তাদের অপর এক বন্ধুর।

নিহতরা হলেন উপজেলার মরিয়মনগর ইউনিয়নের মাইজপাড়া এলাকার প্রবাসী আবদুর রহিমের ছেলে মো. গিয়াস (১৮) ও একই এলাকার সিএনজি অটোরিকশা চালক মো. সিরাজের ছেলে মো. রাকিব (১৭)। আহত যুবকের নাম মো. আলী (১৭)। তার বাড়ি চন্দ্রঘোনা-কদমতলী ইউনিয়নের কাটাখালী এলাকায়। সে বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। শুক্রবার (১৮ জানুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে মরিয়মনগর কর্ণফুলী মাঠে নিহত দুই তরুণের জানাজা নামাজ শেষে স্থানীয় কবরস্থানে তাদের লাশ দাফন করা হয়।
প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, চট্টগ্রাম শহর থেকে ছেড়ে আসা কাপ্তাইগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের ছাদে করে বাড়ি ফিরছিল এই তিন তরুণ। বাসটি কাপ্তাই সড়কের রাঙ্গুনিয়ার জিয়ানগর এলাকায় এলে সেখানে সড়কের উপর হেলে পড়া একটি মরা ইউক্যালিপটাস (বেলজিয়াম) গাছের ডালের সাথে ধাক্কা খায় এই তিন তরুণ। এতে বাসের ছাদেই মৃত্যু হয় রাকিবের। বাকী দুই তরুণ বাসের ছাদ থেকে ছিটকে নিচে পড়ে যায়। তাদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেওয়া হলে সেখানে মৃত্যু হয় গিয়াসের। অন্যজন এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন বলে জানা যায়।

কাপ্তাই সড়কের জিয়ানগর এলাকায় ইউক্যালিপটাস (বেলজিয়াম) গাছটি দীর্ঘদিন ধরে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় সড়কের উপর হেলে পড়লেও তা যথাসময়ে সরিয়ে না নেয়ায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। এই নিয়ে স্থানীয়রা কর্তৃপক্ষের কাছে মৌখিকভাবে বেশ কয়েকবার জানালেও তারা কোন ব্যবস্থা নেয়নি বলে জানায় তারা।

রাঙ্গুনিয়া থানার ওসি মুহাম্মাদ সাইফুল ইসলাম জানায়, ‘এই ঘটনায় বাসটি আটক করা হয়েছে। তবে কেউ এখনও লিখিত অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Logo-orginal