, শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

Avatar admin

বিয়ের চারদিন পর কাজি হিরনের মৃত্যু কাঁদিয়ে গেল কুয়েত প্রবাসীদের

প্রকাশ: ২০২০-০১-২০ ১০:৩৪:৩৫ || আপডেট: ২০২০-০১-২০ ১০:৩৪:৩৫

Spread the love

আবুল কাশেম, কুয়েতঃ আল্লাহ তায়লার ঘোষণা-” কুল্লু নাফসিন যাইক্বাতুল মাউত” প্রত্যেক প্রাণী মৃত্যু স্বাদ আস্বাদন করবে। (সুরা আলে ইমরান, আয়াত ১৮৫)

উল্লেখিত আয়াতের মৌলিক নির্দেশনা হচ্ছে, নির্দিষ্ট সময় শেষ হলে সব আত্নাকে ফিরে যেতে হবে মাবুদের নিকটে।

মৃত্যুস্বাদ গ্রহণের পুর্বে যে কোন উছিলা দ্বারা জান ফেরত নেয়, মউতের ফেরেশতা আজরাইল (আঃ)।

যেমনঃ রোগাক্রান্ত, দুর্ঘটনা, শত্রু কতৃক হামলা, রাষ্ট্রীয় আইনে কতল ইত্যাদি।

তবে নিশ্চিত যেতে হবে পরপারে, দেখা হবে সে পরপারে। মৃত্যুর পরের জীবন আখিরাতের অনন্ত জীবনের প্রস্তুতি কাল।

সে অন্ততকালের বাসিন্দা হয়ে গেলেন টগবগে যুবক কুয়েত প্রবাসী কাজি হিরণ, হাস্যজ্জল যুবকটি বুকভরা স্বপ্ন নিয়ে কয়েক বছর পুর্বে প্রবাসের খাতায় নাম লিখিয়েছিল।

ড্রাইভার পেশার ভিসায় কুয়েত আসা কাজি হিরন, গাড়ি চালনা অবস্থায় মারাত্মক দূর্ঘটনায় নিহত হন গত শনিবার রাতে।

গতকাল আরটিএম নিউজে প্রকাশিত সংবাদ প্রকাশ, কুয়েতের সড়কে বেপরোয়া গতিতে প্রাইভেট গাড়ী চালিয়ে মারাত্মক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয় নোয়াখালীর যুবক কাজি হিরন।

ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন ।

গতকাল সোশ্যাল মিডিয়ায় হাজার হাজার কুয়েত প্রবাসী বাংলাদেশীকে তার মৃত্যুতে ব্যাতিত ও শোকাহত দেখা গেছে।

কাজি হিরন মৃত্যুর চারদিন পুর্বে মোবাইল ফোনে বিয়ে করেন তার পছন্দের এলাকার এক যুবতীকে। বিয়ের মিষ্টিমুখের ছবি সেদিন ফেইচবুকে আপলোড করে।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের কাজি আলাউদ্দিন বাড়ির বাসিন্দা কাজি হিরণ লেখাপড়া করেছেন ছয়ানী উচ্চ বিদ্যালয়ে।

নিহতের ফেইচবুক আইডিতে ভিজিট করলে প্রথমে দুটি কুরআনের ছবি চোখে পড়ে, কুরআনের মহব্বত বুকে নিয়ে বিদায় নিল কাজি হিরণ।

তবে তার মৃত্যুর কারণ, স্পীডে গাড়ি চালনা।

কাজি হিরনের মৃত্যু দৃশ্য প্রবাসে যারা গাড়ি চালান, তাদের শিখিয়ে গেল অনেক কিছু।

বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালাবেন না” কুয়েতের রাস্তার সাইনের নির্দেশনা অনুসার নিজ গাড়ির স্পীড কন্ট্রোলে রাখুন।

গাড়ি চালানোর সময় কোন অবস্থায় মোবাইল টাচ করবেননা। পারিবারি বা চাকুরীজনিত বিষয়ে কোন প্রকার টেনশান করবেন না।

চলন্ত অবস্থায় আল্লাহকে স্মরণে রাখুন।

আল্লাহ তায়ালা মরহুমকে ক্ষমা করুন” পরিবারকে সবর এখতিয়ারের তৌফিক দিন। আমিন।

Logo-orginal