, বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট ২০২০

Avatar admin

ভাড়াটিয়াদের বাড়ি ভাড়া মওকুফ করে দিলেন অভিনেত্রী ভাবনার পরিবার

প্রকাশ: ২০২০-০৩-২২ ০০:১৬:৪০ || আপডেট: ২০২০-০৩-২২ ০০:১৬:৪০

Spread the love

রাকিবউদ্দিন, বিনোদন ডেস্কঃ বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশ। স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি বন্ধ হয়ে গেছে থিয়েটার ও সিনেমা হলগুলো ও। সার্বিক পরিস্থিতিতে মানবিক দিক বিবেচনা করে ব্যতক্রমী দৃষ্টান্ত স্থাপন করল অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনার পরিবার।

করোনার কারণে সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়ছে দেশের সার্বিক অর্থনীতিতে। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির ঘটনারও খবর আসছে। আর এসব বিবেচনা করে চলতি মাসে ভাড়াটিয়াদের বাড়ি ভাড়া মওকুফ করে দিচ্ছেন অভিনেত্রী ভাবনার পরিবার।

দেশের এ সংকটময় অবস্থায় ছোট পরিসরে হলেও ভাবনা তার মায়ের এমন উদ্যোগের প্রশংসা করেন। ‘ভয়ঙ্কর সুন্দর’-এর এই অভিনেত্রী বলেন, রোজগার ও বাড়িভাড়া নিয়ে প্রতিমাসে ভাড়াটিয়াদের মধ্যে একটা চাপ থাকে। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে মানষ কাজই করতে পারছে না। তাহলে ইনকাম করবে কীভাবে? তাই এই মাসে বাসা ভাড়া না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আমার মা রেহানা হাবিব।

মায়ের এমন সিদ্ধান্তে বেজায় খুশি ভাবনা। তিনি বলেন, হয়তো অনেকেই শো-অফ ভাববে। কিন্তু এসব ভেবে আম্মু এই সিদ্ধান্ত নেননি। আম্মু সবসময় এমন। বৃদ্ধদের স্কুল চালাতো, নিরক্ষরদের লেখাপড়া শেখাতেন। স্বাক্ষর করানো শেখাতেন।

ভাবনা বলেন, অন্য বাড়িওয়ালাদেরও মানবিক দিক বিবেচনা করে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত।

অভিনেত্রী ভাবনার বাবা নির্মাতা হাবীবুর রহমান হাবিব বলেন, তাদের মালিকানায় রাজধানীর হাজারীবাগ এলাকায় ৬ তলা বাড়িতে ছয়টি পরিবার ভাড়া থাকেন। বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে তাদের কাছ থেকে মার্চ মাসের ভাড়া না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

‘রাত্রীর যাত্রি’ খ্যাত এই নির্মাতা জানান, মানুষ যে কোনো সংকট সময়ে মানবিকতা আর উদারতার পরিচয় দিয়ে এসেছে। যতো সংকটই ধেয়ে আসুক, তা মোকাবেলা করতে এগিয়ে এসেছে মানুষ ই। দুর্যোগেও ত্রাতা মানুষ ই। কিন্তু তারপরেও কখনো কখনো দুর্যোগকে পুঁজি করে অসাধু একটি শ্রেণি ফায়দা নেয়ার ধান্দায় থাকে। করোনা পরিস্থিতিতেও এমন সুযোগসন্ধানী ব্যবসায়িদের আমরা দেখছি। আর এসব দিক বিবেচনা করেই আমাদের সাধ্যের মধ্যে কিছু মানুষকে একটু স্বস্তি দিতে পারছি, এটাই আমাদের পরিবারের জন্য প্রশান্তির।

তিনি মনে করেন, দেশের এমন বিরূপ পরিস্থিতিতে ছোট্ট এই উদাহরণটি যদি রাজধানীসহ সারা দেশের আরো বাড়িওয়ালারা অনুসরণ করেন, তবে তার পরিবারের এই উদ্যোগ আরো সার্থক হয়ে উঠবে।

Logo-orginal