, শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০

Avatar admin

ভারতের দুই এলাকায় ঢুকে পড়েছে চীনা সেনারা” বাজছে যুদ্ধের দামামা

প্রকাশ: ২০২০-০৫-২৭ ০১:০১:৪৯ || আপডেট: ২০২০-০৫-২৭ ০১:০১:৫০

Spread the love

ভারত ও চীনের মধ্যে বাজছে যুদ্ধের দামামা। ঠিক যখন মহামারী করোনাভাইরাস নিয়ে যখন গোটা দুনিয়া হিমশিম খাচ্ছে।

এরইমধ্যে জানাগেছে, অন্তত চারটি স্থানে এলএসি পার হয়ে ভারতের দাবিকৃত সীমানায় ঢুকেছে চীনের সেনারা। খবর বিবিসির।

এমন পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার (২৬ মে) উচ্চ পর্যায়ের জরুরী বৈঠক করেছেন নরেন্দ্র মোদী।

ভারত ও চীনের মধ্যে যে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বা এলএসি রয়েছে, গত কয়েকদিনে সেই এলএসি বরাবর বিভিন্ন স্থানে দুই দেশের সেনারা সরাসরি সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে।

চীনা সৈন্যরা এবার ঘাঁটি তৈরি করেছে লাদাখের গালওয়ান ভ্যালির মতো সম্পূর্ণ নতুন জায়গাতেও, যেখানে আগে কোনও বিরোধের ইতিহাস ছিল না।

উত্তরাঞ্চলীয় প্যানগং লেকের তীর, ডেমচক ও গালোয়ান উপত্যকা অঞ্চলের চার-পাঁচটি এলাকায় অমীমাংসিত চূড়ান্ত নিয়ন্ত্রণ রেখা (এলএসি) বরাবর চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) অন্তত ১২শ’ থেকে ১৫শ’ সদস্য একদম মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার। পিএলএ’র কিছু সীমান্ত প্রতিরক্ষা রেজিমেন্ট এলএসি’র নিকটবর্তী হয়েছে। কমপক্ষে ৫০০ সেনাকে মহড়া থেকে ওই অঞ্চলের সীমান্তের দিকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

এদিকে মোদী ভারতের ন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যাডভাইজর (জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা) অজিত দোভাল, ভারত-চীন বিষয়ক চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথের সঙ্গে আলোচনায় বসেন।

উচ্চ পর্যায়ের এ বৈঠকে ভারতের নৌবাহিনী, বিমান বাহিনী ও সেনাবাহিনীর প্রধানরাও উপস্থিত ছিলেন।

গত দু-তিনসপ্তাহের ভেতর চীনা সেনাবাহিনী এই ‘এলএসি’ অন্তত চার জায়গায় অতিক্রম করে অবস্থান নিয়েছে। জায়গাগুলো হল; লাদাখের প্যাংগং সো বা প্যাংগং লেক, গালওয়ান নালা ও ডেমচক, সিকিমের নাকু লা।

Logo-orginal