, শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

Avatar admin

অবশেষে হজ পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদিআরব তবে স্থানীয়ভাবে

প্রকাশ: ২০২০-০৬-২৩ ০৬:৩৭:০৫ || আপডেট: ২০২০-০৬-২৩ ০৬:৩৭:০৮

Spread the love

এবার সীমিত সংখ্যক সৌদি স্থানীয় হাজীদের নিয়ে হজ্জের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে  সৌদি হজ্জ মন্ত্রালয়।

রিয়াদ – সৌদি আরবের কর্তৃপক্ষগুলি ইতিমধ্যে কিংডমে থাকা সীমিত সংখ্যক নাগরিক এবং বাসিন্দাকে এই বছরের হজ করার অনুমতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।সৌদি কতৃপক্ষ।

সোমবার এক বিবৃতিতে হজ ও ওমরাহ মন্ত্রালয়  বলেছে যে করোনভাইরাস মহামারীটির ধারাবাহিকতা এবং জনাকীর্ণ স্থান এবং বৃহৎ সমাবেশে সংক্রমণ ছড়িয়ে যাওয়ার ঝুঁকির আলোকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে এই বছরের জন্য হজ (১৪৪৪ হিজরি  / ২০২০) খ্রিস্টাব্দ) অনুষ্ঠিত হবে যার মাধ্যমে ইতিমধ্যে সৌদি আরবে বসবাসকারী বিভিন্ন জাতীয়তা ও প্রবাসীদের নিয়ে   খুব সীমিত ভাবে এটি সম্পাদন করতে সক্ষম হবে। বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট,

“এই মহামারীজনিত ঝুঁকি থেকে জনগনকে  রক্ষার জন্য প্রতিরোধ মূলক এই   পদক্ষেপ এবং প্রয়োজনীয় সামাজিক দূরত্বের প্রোটোকল পর্যবেক্ষণ করার সময় এবং  জনস্বাস্থ্যের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে নিরাপদ উপায়ে হজ নিশ্চিত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এবং এতে ইসলামের শিক্ষার সাথে সামঞ্জস্য রেখেছিলেন। বিবৃতিতে যুক্ত করা হয়েছে, মানুষের জীবন রক্ষা করা।

“দুটি পবিত্র মসজিদের খাদেম  সরকার বার্ষিক লক্ষ লক্ষ হজ ও ওমরাহ যাত্রীদের  সেবা করার জন্য সম্মানিত হয়েছে এবং এটি নিশ্চিত করে যে এই সিদ্ধান্ত সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার থেকে শুরু করে এটি তাদের ভূমিতে এই পবিত্র হজের   নিরাপত্তা বজায় রাখার নির্দেশ দেয়।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “আমরা সর্বশক্তিমান আল্লাহর কাছে দোয়া প্রার্থনা করছি। যে সমস্ত দেশে এই মহামারী হয়েছে তাদের  এই রোগ  থেকে রক্ষা করুন এবং সমস্ত মানুষকে সুরক্ষিত ও সুরক্ষিত রাখুন,” বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

সৌদি আরবের সর্বাধিক অগ্রাধিকার হ’ল মুসলিম হজযাত্রীদের সর্বদা নিরাপদে ও সুরক্ষিতভাবে হজ ও ওমরাহ পালনের জন্য সক্ষম করা এবং মহামারীটি মহামারীর সূচনা থেকেই উমরাহ হজযাত্রীদের প্রবেশ স্থগিত করে এই পবিত্র ন্তান টিকে রক্ষার  জন্য প্রয়োজনীয় সকল সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আগ্রহী ছিল। পবিত্র স্থানগুলিতে ইতিমধ্যে সেগুলোর  নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে  , বিবৃতিতে আরও যো গ করা হয়েছে।

হজের সিদ্ধান্ত সম্পর্কে মন্তব্য করে সৌদি মানবাধিকার কমিশন বলেছে যে সৌদি আরব স্বাস্থ্যের সর্বজনীন অধিকারে বিশ্বাসী। হজ সীমাবদ্ধ না শুধুমাত্র দেশকে  রক্ষা করে না বরং বহু দেশের  বিশ্বজুড়ে হাজী সাহেবদের  সাস্হ্যের দিকেও নজর রাখা  সৌদি আরবের  সবগুলো সিদ্ধান্তই যূগউপযোগী দেশ ও বিশ্বমানবতার এক অনন্য্য নজির সৃষ্টি করেছে অতিতে লাখ লাখ  হাজী সাহেবদের   আল্লাহর মেহমান বলে  সেবা দিয়ে থাকেন প্রতি বছর বছর এবার বিশ্বসাস্হ্য সংস্থাও পারিপার্শ্বিক এর কথা চিন্তা করে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে

Logo-orginal