, রোববার, ৫ জুলাই ২০২০

Avatar admin

কুয়েতে ১ম বারের মত আক্রান্তের চেয়ে সুস্থের সংখ্যা দ্বিগুণ

প্রকাশ: ২০২০-০৬-০১ ১৯:৫৬:১৯ || আপডেট: ২০২০-০৬-০১ ২২:৪১:০১

Spread the love

আরটিএম ডেস্কঃ মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কুয়েত কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবের শুরু পর থেকে এই ১ম বার আক্রান্তের চেয়ে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা দ্বিগুণ ।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ১৫১৩ জন এবং একই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে ৭৫১ জন, করোনা চিকিৎসায় যাহাকে বেশ অগ্রগতি হিসেবে দেখছে স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্টরা ।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ১ম করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর খুব শক্তভাবে কুয়েত সরকার বিভিন্ন স্বাস্থ্য নির্দেশিকা জারি করে ।

জিসিসি দেশ সমূহে শিক্ষা ও সরকারী প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে কুয়েত ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শে একের পর এক পদক্ষেপ নেয় দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ।

অন্যদিকে দিন দিন কোভিড-১৯ প্রকোপ বাড়তে ছিল কুয়েতে, ইরান ফেরত নাগরিক দ্বারা কুয়েতে আক্রান্তের সংখ্যা লিপিবদ্ধ হতে থাকে, চীন, ইতালি, যুক্তরাজ্যে, ইরাক, থাইল্যন্ডসহ বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে নাগরিকরা ফেরত আসা শুরু হলে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকে ।

তবে গণপরিবহণ, ট্যাক্সি ও জনসমাগম বন্ধ করার পরও প্রাণঘাতী করোনা প্রবাসীদের শরীরেও সংক্রমিত হতে শুরু হলে দিন দিন বাড়তে থাকে আক্রান্তের সংখ্যা ।

অন্যদিকে প্রবাসীদের মাঝে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় গত এপ্রিল মাসের মাঝামাঝি বিদেশী অধ্যুষিত জিলিব ও মাহবুল্লা এলাকায় পুর্ন কারফিউ জারি করা হয় ।

গত ১০ মে থেকে কুয়েত জুড়ে জারি করা পুর্ণ কারফিউ, এরপর গতকাল ৩১ মে থেকে প্রবাসী অধ্যুষিত ফারওয়ানিয়া, খাইতান ও হাওয়ালিকে পুর্ণ কারফিউ এলাকা ঘোষণা করা হয় ।

গত ২৮ মে কুয়েত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের রিপোর্টে বলা হয়েছে, স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে আসতে কয়েকটি ধাপ অতক্রম করতে হবে, সে হিসেবে গতকাল রোববার থেকে ১ম ধাপে সীমিত আকারে স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু করেছে সরকার ।

আজ সোমবার (১ জুন) পযর্ন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৭,৭৬২ জন, মোট সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ১২,৮৯৯ জন, মোট মৃতের সংখ্যা ২২০ জন ।

সবচেয়ে বেশী আক্রান্ত হয়েছে ভারতীয়রা, ২য় স্থানে রয়েছে কুয়েতি নাগরিক, ৩য় অবস্থানে রয়েছে মিশরীয়রা এবং ৪র্থ স্থানে রয়েছে বাংলাদেশী প্রবাসীরা ।

Logo-orginal