, বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

Avatar admin

বৈরুত বিস্ফোরণে আহত বাংলাদেশী যুবক জামালও না ফেরার দেশে

প্রকাশ: ২০২০-০৮-২৬ ১৯:৪০:৫১ || আপডেট: ২০২০-০৮-২৬ ১৯:৪০:৫৩

Spread the love

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ জোড়া বিস্ফোরণের ঘটনায় মো. আবু জামাল (২৫) নামে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইলাহি রাজিউন।

এ নিয়ে লেবানন প্রবাসী ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার তিন যুবকের মৃত্যু হলো। মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় আড়াইটা থেকে তিনটার দিকে লেবাননের একটি হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় অবস্থায় তিনি মারা যান।

নিহত ওই যুবক নবীনগর উপজেলার বিদ্যাকুট ইউনিয়নের বিদ্যাকুট গ্রামের দুধ মিয়ার ছেলে।

 নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালে সাড়ে চার লাখ টাকা খরচ করে কোম্পানি ভিসায় লেবাননে পাড়ি জমান জামাল। গত ৪ আগস্ট বৈরুত বন্দরের পিৎজা শপে কাজ করছিলেন জামাল। এ সময় শক্তিশালী বিস্ফোরণে তার কর্মস্থল পিৎজা শপটি সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সে সময় জামাল গুরুতর আহত হন।

পরে তাকে উদ্ধার করে দেশটির একটি হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হয়। আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় আড়াইটা থেকে তিনটার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের বাবা দুধ মিয়া বলেন, লেবাননে বিস্ফোরণের পর আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছেলের মৃত্যুর সংবাদ পেয়েছি।

ছেলে আমাদের কান্নাকাটি করতে না করেছিলো। দ্রুত সুস্থ হয়ে যাবে বলে আমাদের আশ্বাস দিয়েছিলো। তিনি ছেলের লাশ দ্রুত দেশের মাটিতে ফিরিয়ে আনার জন্যে বাংলাদেশ সরকারের সহায়তা চেয়েছেন।

বিদ্যাকুট  ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বৈরুতে জোড়া বিস্ফোরণের ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের ভাদেশ্বরা গ্রামের তাজুল ইসলামের ছেলে মেহেদী হাসান রনি (২৫) এবং কসবা উপজেলার কাইমপুর ইউনিয়নের জাজিসার গ্রামের মোর্শেদ মিয়ার ছেলে মো. রাসেল (২২) মারা যান।

সুত্রঃ দৈনিক মানবজমিন।

Logo-orginal