, বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০

Avatar admin

১১ দফা দাবিতে সোচ্চার ইরাক প্রবাসীরা

প্রকাশ: ২০২০-১০-৩০ ১৫:৩৭:৩৪ || আপডেট: ২০২০-১০-৩০ ১৫:৩৭:৩৬

Spread the love

সাইফ নুরঃ গত ২৮ অক্টোবর ইরাক প্রবাসীদের পক্ষে বাংলাদেশ প্রবাসী অধিকার পরিষদের ইরাক শাখার সমন্বয়ক সাহাবউদ্দিন সিহাব, বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক তারেক রহমান ও ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক সোহরাব হোসেন স্বাক্ষরিত একটি স্মারকলিপি প্রবাসী কল্যান মন্তনালয়ে প্রেরন করা হয়। স্মারকলিপিতে ১১ দফা দাবি তুলে ধরা হয়।
দাবি গুলো হচ্ছে →
১/ ইরাকে প্রায় ২০ টি বাংলাদেশীর লাশ হসপিটালের মর্গে আছে সেগুলো যত দ্রুত সম্ভব দেশে আনার ব্যবস্থা করতে হবে।
২/ দালালের মাধ্যমে পাসপোর্ট নবায়ন করতে ২৫০-৩০০ ডলার যা বাংলাদেশি টাকায় ২০-২৫ হাজার খরচ হয় সরাসরি এম্বাসির মাধ্যমে শুধু সরকারি ফি প্রদানের মাধ্যমে পাসপোর্ট নবায়ন সেবা নিশ্চিত করা
৩/ ইরাকে অবস্থানরত ১ লাখ ২০ হাজার অবৈদ প্রবাসীদের বৈধ করণে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া।
৪/ অবৈধ প্রবাসীরা ধরা পরলে এম্বাসি থেকে দেশে পাঠানোর প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দ্রুত তৈরি করা।
৫/ ইরাকে অবৈধভাবে ১ লাখ ২০ হাজার লোক কিভাবে গেল, কোন এজেন্সী এতে জড়িত, সরকারি ইমিগ্রেশন সিস্টেমে বিদ্যমান গাফিলতির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ।
৬/ ইরাক থেকে নিজ একাউন্টে টাকা জমা করা যায় না, ফলে ইরাকে বাংলাদেশী প্রবাসীরা আর্থিক অনিরাপত্তায় ভোগে যা অন্য দেশ থেকে করা যায় তাই ইরাক প্রবাসীদের ব্যাংক সেবা সহজীকরণ।
৭/ ইরাকে বাংলাদেশি ৯৫% প্রবাসী অবৈধ হওয়ায় চিকিৎসা সেবা নিতে পারছে না তাই বাংলাদেশ এম্বাসি ইরাক এম্বাসির সাথে আলোচনা সাপেক্ষে অসুস্থদের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে হবে।
৮/ বর্তমানে ইরাক থেকে বাংলাদেশে যেতে ১০০০-১২০০ ডলার লাগে যা প্রবাসীদের জন্য বহন করা কষ্টসাধ্য টিকেট মূল্য মূল্য হ্রাস করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া
০৯/বাংলাদেশ এবং ইরাকের মধ্যে ভিসা প্রসেসিং এর মাধ্যমে শ্রমবাজার সৃষ্টি করা
১০/ ইরাক প্রবাসিদের যে কোন ধরনের সমস্যা আমলে নেওয়ার জন্য এম্বাসিতে একটা মনিটরিং কল রুম প্রতিষ্ঠা করা যাহা ২৪ ঘণ্টা প্রবাসিদের সেবা প্রদান করবে।
১১/ অসহায় সম্বলহীন ইরাক প্রবাসীদের সরকারি খরচে দেশে ফিরে আনতে হবে।

উক্ত দাবিসমূহের দ্রুত বাস্তাবায়ন করার দাবিতে প্রবাসী অধিকার পরিষদের ইরাক শাখার সমন্বয়ক #তাইজুল ইসলাম একটি প্রতিবাদি সমাবেশ করেন। তাইজুল ইসলাম বলেন ১১ টি দাবি যেন ইরাক প্রবাসীদের জন্য ১১ টি রক্ষাকবচ। তিনি আরো বলেন এই দাবিগুলো বাস্তাবায়ন হলে বাংলাদেশী ইরাক প্রবাসীদের দীর্ঘ দিনের ভোগান্তির সমাপ্তি ঘটবে এবং রেমিট্যান্সের পরিমাণও বৃদ্ধি পাবে। সর্বোশেষ তিনি ইরাক প্রবাসীদের ১১ দফা দাবিতে সোচ্চার থাকার আহব্বান জানান। উক্ত প্রতিবাদী সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী অধিকার পরিষদের ইরাক শাখার সদস্য মোঃ ইসমাইল হোসেন, মোঃ রফিকুল ইসলাম, মোঃ সোহেল রানা মোঃ রুবেল হোসেন, মোঃ সোহেল রহমান, মোঃ নুর ইসলাম সহ আরো অনেকে। সকল নেতাকর্মীরা ১১ দফা দাবি দ্রুত বাস্তাবান করার দাবি জানান।

Logo-orginal