, রোববার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১

jamil Ahamed jamil Ahamed

কুয়েতে দণ্ডিত এমপি পাপুলের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১০ মার্চ

প্রকাশ: ২০২১-০২-০১ ১৪:৩০:১৮ || আপডেট: ২০২১-০২-০১ ১৪:৩৫:৫৩

Spread the love

বিপুল পরিমাণ অবৈধ অর্থ লেনদেনের অভিযোগে করা মামলায় লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম ওরফে পাপুল ও তাঁর পরিবারের তিন সদস্যসহ আটজনের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল পিছিয়েছে। গতকাল রবিবার ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াসির আহসান চৌধুরীর আদালত এ জন্য ১০ মার্চ দিন ধার্য করেছেন।

গত ৬ জুন থেকে কুয়েতে আটক পাপুলকে গত বৃহস্পতিবার মানবপাচারের দায়ে চার বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত। সেখানে তাঁর বিরুদ্ধে মুদ্রাপাচারের অভিযোগের বিচার এখনো শেষ হয়নি।

অবৈধ অর্থ লেনদেনের অভিযোগে করা মামলার অন্য আসামিদের মধ্যে রয়েছেন পাপুলের শ্যালিকা জেসমিন প্রধান, মেয়ে ওয়াফা ইসলাম, ভাই কাজী বদরুল আলম লিটন, পাপুলের ব্যক্তিগত কর্মচারী মোহাম্মদ সাদিকুর রহমান মনির, জব ব্যাংক ইন্টারন্যাশনালের ম্যানেজার গোলাম মোস্তফা ও জেসমিন প্রধানের মালিকানাধীন কম্পানি জেডাব্লিউ লীলাবালী।

গত ২২ ডিসেম্বর রাজধানীর পল্টন থানায় অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) সহকারী পুলিশ সুপার (অর্গানাইজ ক্রাইম) আলামিন এই মামলা করেন। এজাহারে বলা হয়েছে, আসামিরা মানবপাচারকারী চক্র। তাঁরা বিভিন্ন সময় ৩৮ কোটি ২৩ লাখ ৪০ হাজার ৫৬৭ টাকা অবৈধভাবে আয় করেছেন। এর আগে গত ১১ নভেম্বর দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১-এ পাপুল, তাঁর স্ত্রী সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি সেলিনা ইসলাম, শ্যালিকা জেসমিন প্রধান ও মেয়ে ওয়াফা ইসলামের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা করা হয়। এ মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি দিন ধার্য রয়েছে।

#সুত্র: কালের কন্ঠ”

Logo-orginal