, মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১

admin admin

করোনা রোগী ভর্তি নিচ্ছে ‘রাঙ্গুনিয়া হেলথ কেয়ার হসপিটাল’

প্রকাশ: ২০২১-০৪-০৫ ২১:১২:৪০ || আপডেট: ২০২১-০৪-০৫ ২১:১২:৪১

Spread the love

ইসমাঈল হোসেন নয়ন, রাঙ্গুনিয়া: করোনার দুর্যোগে (২০২০) মানুষের মন জয় করা ‘রাঙ্গুনিয়া হেলথ কেয়ার হসপিটাল’ আবারো করোনা রোগী ভর্তি কার্যক্রম শুরু করেছে। বিগত বছরে বেসরকারী হাসপাতাল হিসেবে রাঙ্গুনিয়াতে একমাত্র করোনা রোগী ভর্তি নিয়ে চিকিৎসা সেবা দিয়েছিল এই হসপিটাল। এর ধারাবাহিকতায় বর্তমানে কোভিড-১৯ দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হওয়ার সাথে সাথে করোনা রোগীদের দ্বিতীয় ধাপে আবারো সেবা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাঙ্গুনিয়ার স্বনামধন্য এই হসপিটাল। ইতিমধ্যেই হাসপাতাল ভবনের সম্পূর্ণ আলাদা ওয়ার্ডে
৪ জন করোনা রোগী ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার মোহাম্মদ রেজাউল করিম এর তত্ত্বাবধানে রোগীদের সার্বক্ষণিক সেবা দিচ্ছেন ডাক্তার মো. শহিদুল ইসলাম রুবেল, ডাক্তার মো.মুহিন উদ্দিন, ডাক্তার কুমার বিশ্বজিৎ বিশু।

হাসপাতাল অফিস সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে ৪জন করোনা রোগী এবং করোনা উপসর্গে ৮ জন সহ মোট ১২ জন রোগী ভর্তি আছেন। ইতিমধ্যে বেশ কিছু রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এছাড়া হাসপাতালে অক্সিজেন সুবিধাসহ করোনা রোগীর জরুরি প্রয়োজনে ব্যবস্থা রাখা হয়েছে এম্বুলেন্সের। সেবাও মানসম্মত বলে জানান সুস্থ হওয়া রোগীরা।

বিগত বছরে এই হাসপাতালে জ্বর, সর্দি, কাশি, শ্বাসকষ্টের মতো উপসর্গে চিকিৎসা নিয়েছেন প্রায় ৩৫০ জন রোগী। এর মধ্যে করোনা পজেটিভ রোগী ছিলেন ১২০জন।

হাসপাতালের চেয়ারম্যান ডাক্তার এ টি এম রেজাউল করিম বলেন, মহামারি আকার ধারণ করা করোনায় দেশে হু হু করে বাড়ছে মৃত্যু ও শনাক্ত। রাঙ্গুনিয়ার পাশাপাশি রাঙ্গামাটি, বোয়ালখালী, রাউজান, রাজস্থলী, বান্দরবান সহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকা হতে করোনা উপসর্গ এবং করোনা রোগী এসে ভর্তি হচ্ছে। করোনা উপসর্গ এবং পজিটিভ রোগীদের অন্যান্য রোগীদের থেকে আলাদা ফ্লোরে রাখা হচ্ছে। আবার করোনা উপসর্গ এবং সরাসরি পজিটিভ রোগীদেরকেও আলাদা রেখে সার্বক্ষণীর চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। এছাড়া ২৪ ঘন্টা ইমারজেন্সি সার্ভিস, ল্যাব, প্যাথলজি সার্ভিস, মেডিসিন, সার্জারি, গাইনী, প্রসূতি, মা, শিশু , বক্ষব্যাধি ও হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, অর্থোপেডিক, নিওরোলজি, ইউরোলজি সহ সার্বক্ষণিক বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সমন্বয়ে জটিল রোগের চিকিৎসাসেবা অব্যাহত রয়েছে।

Logo-orginal