, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮

n_carcellar1957

পৌর নির্বাচনের ফলাফল: চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগের দশ-এ-দশ

প্রকাশ: ২০১৫-১২-৩১ ১১:০০:৫৪ || আপডেট: ২০১৫-১২-৩১ ১১:০২:০১

Spread the love

21521_943148225778439_1496785180927291846_n

আরটিএমনিউজ২৪ডটকম,চট্টগ্রাম: প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠিত হওয়া নির্বাচনে চট্টগ্রামের দশ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন। এর মধ্যে চন্দনাইশ ছাড়া বাকী নয়টিতেই নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলো বিএনপি সর্মর্থিত মেয়র প্রার্থীরা।

বুধবার ভোটগ্রহণ শেষে বেসরকারীভাবে ঘোষিত ফলাফলে এ তথ্য জানা যায়।

বেসরকারীভাবে ঘোষিত ফলাফলে বাঁশখালী সেলিমুল হক চৌধুরী, রাঙ্গুনিয়ায় মো. শাজাহান শিকদার, পটিয়ায় হারুন অর রশিদ, চন্দনাইশে মাহবুবুল আলম, রাউজানে দেবাশিষ পালিত, সন্ধীপে জাফর উল্লাহ টিটু, মীরসরাইয়ে গিয়াস উদ্দিন, সীতাকুন্ডে বদিউল আলম, বারৈইয়ারহাটে নিজাম উদ্দিন ও সাতকানিয়ায় মো. জোবায়র নির্বাচিত হন।

ফলাফলে দেখা যায়, বাঁশখালী পৌরসভায় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেলিমুল হক চৌধুরী ১৩ হাজার ৩৩০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি’র মেয়র প্রার্থী (ধানের শীষ) পেয়েছেন ৬ হাজার ৩৫০ ভোট।

রাঙ্গুনিয়া পৌরসভায় নির্বাচনে মো. শাজাহান শিকদার পেয়েছেন ১২ হাজার ৯৮৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি’র মেয়র প্রার্থী ধানের শীষ প্রতীকে মো. হেলাল উদ্দিন খান পেয়েছেন ২ হাজার ১৫৮ ভোট।

পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে ১২ হাজার ৯৬ ভোট পেয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী হারুন অর রশিদ বেসরকারীভাবে জয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী মো. তৌহিদুল আলম পেয়েছেন ৭ হাজার ৫৩৫।

চন্দনাইশ পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামীলীগ প্রার্থী মাহবুবুল আলম। আওয়ামীলীগ এ প্রার্থী পেয়েছেন ১১ হাজার ৫২২ ভোট ও তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এলডিপি’র (ছাতা) প্রার্থী মোহাম্মদ আইয়ুব পেয়েছেন ২ হাজার ৭৭০ ভোট।

রাউজান পৌরসভায় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনিত মেয়র প্রার্থী দেবাশিষ পালিত ২৮ হাজার ১৬২ ভোট পেয়েছেন। আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি’র মেয়র প্রার্থী কাজী আবদুল্লাহ আল হাসান পেয়েছেন ২ হাজার ১২০ ভোট।

সন্ধীপ পৌর সভা নির্বাচনে ২০ হাজার ৬৯০ ভোট পেয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী (নৌকা) জাফর উল্লাহ টিটু বেসরকারীভাবে মেয়র পদে জয়ী হয়েছেন।এখানেও বিএনপি প্রার্থী আজমত উল্লাহ বাহাদুর ৪৬৪ ভোট পেয়ে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন।

সীতাকুন্ড পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে ১৪ হাজার ৮৩২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী বদিউল আলম। এছাড়া বিএনপি প্রার্থী সৈয়দ আবুল মনসুর পেয়েছেন ২ হাজার ৯৪২ ভোট।

মীরসরাই পৌরসভা নির্বাচনে ৭ হাজার ২৯৭ ভোট পেয়ে বেসরকারী ভাবে জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী (নৌকা) গিয়াস উদ্দিন। আর ৪৭৫ ভোট পেয়ে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিএনপি প্রার্থী এজেড এম রফিকুল ইসলাম পারভেজ।

সাতকানিয়া পৌরসভা নির্বাচনে বেসরকারী ঘোষিত ফলাফলে ২০ হাজার ২৫৭ ভোট পেয়ে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. জোবাইয়ের জয়ী হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি প্রার্থী হাজী মোহাম্মদ রফিকুল আলম পেয়েছেন ২ হাজার ২৮৯ ভোট।

বারৈয়ারহাট পৌরসভা নির্বাচনে ৫ হাজার ৬৬ ভোট পেয়ে বেসরকারী ভাবে জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী (নৌকা) নিজাম উদ্দিন। আর বিএনপি প্রার্থী মঈন উদ্দিন লিটন পেয়েছেন ২৩৮ ভোট।

এদিকে, ভোট কারচুপি, কেন্দ্র দখল ও অনিয়মের অভিযোগ এনে চট্টগ্রাম জেলার ১০ পৌরসভার সবকটিতেই পুনর্নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও চট্টগ্রাম বিভাগী পৌর নির্বাচন মনিটরিং সেলের সদস্য সচিব মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন।

আরটিএমনিউজ২৪ডটকম/এন এ কে

চট্টগ্রামঃ জেলার সর্বশেষ আসনের ঘরে চট্টগ্রাম ১৬ বাঁশখালী উপজেলা। নানা ইতিহাসে ভরা বাঁশখালীর জনপদ,শিক্ষার গড়
ছবি, আরটিএম । নিজস্ব প্রতিবেদক ( ফটিকছড়ি) চট্টগ্রামঃ দেশের বৃহত্তম উপজেলা
চট্টগ্রাম: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষদিনে চট্টগ্রামের ১৬টি সংসদীয় আসনে ১৯ জন প্রার্থী
ছবি, লোহাগাড়া থানার পেইজ থেকে। লোহাগাড়া, চট্টগ্রামঃ চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় থানায়
চট্টগ্রামঃ জেলার সাতকানিয়া উপজেলার জঙ্গল মার্দাশা এলাকায় গলাটিপে নয় বছর বয়সী এক শিশুকে হত্যা করা

Logo-orginal

আর টি এম মিডিয়া কর্তৃক প্রকাশিত