, মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯

rtm

আজ পবিত্র আখেরি চাহার শোম্বা

প্রকাশ: ২০১৮-১১-০৭ ০৭:২৬:১০ || আপডেট: ২০১৮-১১-০৭ ০৭:২৬:১০

Spread the love
আজ পবিত্র আখেরি চাহার শোম্বা

আরটিএমনিউজ২৪ডটকম: পবিত্র আখেরি চাহার শোম্বা আজ বুধবার। হিজরি সালের সফর মাসের শেষ বুধবার মুসলিম বিশ্বে অত্যন্ত মর্যাদাপূর্ণ স্মারক দিবস হিসেবে পবিত্র আখেরি চাহার শোম্বা পালিত হয়।

১৪৪০ হিজরি সনের পবিত্র আখেরি চাহার শোম্বা উপলক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আজ ওয়াজ ও মিলাদ-মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ আজ বন্ধ থাকবে।

ইসলামের সর্বশেষ, সর্বশ্রেষ্ঠ ও বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর জীবনে আখেরি চাহার শোম্বা বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। নবী করিম (সা.) ইন্তেকালের আগে এদিনে কিছুটা সুস্থতা বোধ করেছিলেন। ফারসিতে এ দিনটিকে আখেরি চাহার শোম্বা নামে অভিহিত করা হয়।

ফারসি শব্দমালা আখেরি চাহার শোম্বা অর্থ শেষ চতুর্থ বুধবার। রাসুলুল্লাহ (সা.) জীবনে শেষবারের মতো রোগমুক্তি লাভ করেন বলে দিনটিকে মুসলমানেরা প্রতিবছর ‘শুকরিয়া দিবস’ হিসেবে পালন করেন। তারা নফল ইবাদত-বন্দেগির মাধ্যমে দিবসটি অতিবাহিত করেন। তাই উম্মতে মুহাম্মদীর আধ্যাত্মিক জীবনে আখেরি চাহার শোম্বার গুরুত্ব ও মহিমা অপরিসীম।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহকারী পরিচালক (জনসংযোগ) মুহাম্মদ নিজাম উদ্দিন মঙ্গলবার রাতে জানান, পবিত্র আখেরি চাহার শোম্বা উপলক্ষে বুধবার বাদ যোহর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে ওয়াজ ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। ওয়াজ করবেন খতিব কাউন্সিলের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা জহিরুল ইসলাম মিয়া মোস্তাকিম। এতে সভাপতিত্ব করবেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজাল।

হজের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হচ্ছে আজ। মঙ্গলবার সন্ধার পূর্বে মিনায় অবস্থিত ছোট, মধ্যম ও বড় জামারায়
মক্কা: মুসলমানদের অন্যতম আবশ্যকীয় ইবাদত পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছ গতকাল। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে
মাওলানা আনসারুল্লাহ হাসান: আল্লাহর তাআলার বিধানানুসারে যে চারটি  মাসপবিত্র ওসম্মানিত, তার একটি হল যিলহজ্ব মাস।আর এ মাসের সবচেয়ে উৎকৃষ্ট ও মর্যাদাপূর্ণ সময়হল আশারায়ে যিলহজ্ব বা যিলহজ্ব মাসের প্রথমদশক। দুটি ইবাদত এ দশকের মর্যাদাকে আরোঅধিক বৈশিষ্ট্যমন্ডিত করেছে। কুরআন-হাদীসেএই দশকের বিশেষ ফযীলত ও অসীম গুরুত্ব ওতাৎপর্যের কথা বর্ণিত হয়েছে।স্বয়ং আল্লাহতাআলা এই দশকের সম্মান ও পবিত্রতা প্রকাশান্তেএই দশকের রজনীগুলোর নামে শপথ করেছেন।  ইরশাদ হয়েছে। والفجر، وليال عشر শপথ ভোরবেলার, শপথ দশ রাত্রির।-সূরা ফজর(৮৯) : ১-২ হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আববাস রা., হযরতআবদুল্লাহ ইবনে যুবাইর রা. ও মুজাহিদ রাহ. সহঅধিকাংশ সাহাবী, তাবেয়ী ও মুফাসসিরের মতেএখানে দশ রাত্রির দ্বারা যিলহজ্ব মাসের প্রথম দশরাতকেই বুঝানো হয়েছে। হাফেয ইবনে কাসীররাহ. বলেন, এটিই বিশুদ্ধ মত।-তাফসীরে ইবনেকাসীর ৪/৫৩৫-৫৩৬ হাদীস শরীফে এই দশককে দুনিয়ার সবচেয়েউত্তম  ও মর্যাদাবান দশক হিসেবে আখ্যায়িত করাহয়েছে। হযরত জাবির রা. হতে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহুআলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন- أفضل أيام
ইসলাম ডেস্কঃ ইসলামে ফরজ ইবাদতের ১টি হল হজ, আর্থিক ও শারীরিক প্রত্যেক সক্ষম মুসলমান নারী
মক্কা মনোয়ারাঃ কাবা শরিফের নতুন গিলাফ ‘কিসওয়াহ’ তৈরির কাজ শেষ হয়েছে। মসজিদে হারামের তত্ত্বাবধায়ক কমিটির

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal