, বুধবার, ৮ জুলাই ২০২০

Avatar admin

মিরপুরে কলেজে মাকে অপমান করায় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার চেষ্টা

প্রকাশ: ২০১৯-০৯-১৬ ১৯:২৪:৪১ || আপডেট: ২০১৯-০৯-১৬ ১৯:২৪:৪১

Spread the love

রাজধানীর মিরপুর ১৩ নম্বরের বনফুল আদিবাসী গ্রীন হার্ট কলেজের এক শিক্ষার্থী কলেজের তৃতীয়তলা থেকে লাফিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশ বলছে, আহত অবস্থায় ছেলেটিকে প্রথমে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়, পরে নিউরোসায়েন্স হসপিটালে ভর্তি করা হয় ওই শিক্ষার্থীকে।

১৬ সেপ্টেম্বর, সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। আত্মহত্যার চেষ্টা করা ছেলেটির নাম শাহরিয়ার আলম আকাশ। তিনি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের ছাত্র।

জানা যায়, ওই শিক্ষার্থীর মাকে কলেজ কর্তৃপক্ষ অপমান করায় এই আত্মহত্যা চেষ্টা করেন তিনি। আকাশের আত্মহত্যার চেষ্টার পরই কলেজের শিক্ষার্থীরা কলেজের ভেতরে বিক্ষোভ ও স্লোগান দিতে থাকেন। কলেজ কর্তৃপক্ষ থামাতে এলে তাদের সঙ্গে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। পরে ঘটনাস্থলে যান কাফরুল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)।

কলেজ কর্তৃপক্ষ ও শিক্ষার্থীদের বরাতে কাফরুল থানা পুলিশ জানিয়েছে, ছেলেটি পরীক্ষায় খারাপ করায় কলেজ থেকে সকালে তার মাকে ফোন দিয়ে অপমান করা হয়। এ নিয়ে ছেলেটির সঙ্গে বাড়িতেই মায়ের সঙ্গে বাগবিতণ্ডা হয়। পরে সে কলেজে এসে তৃতীয়তলা থেকে নিচে লাফ দেয়।

এদিকে ওই কলেজের শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেছে, নিজেদের দোষ ঢাকতে কলেজ কর্তৃপক্ষ সব সিসিটিভি ক্যামেরা খুলে ফেলেছে। তবে এ বিষয়টি এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ।

এর আগে ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে একই ধরনের একটি ঘটনা ঘটে রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে। পরীক্ষায় নকল করার অভিযোগে ওই প্রতিষ্ঠানের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিত্রী অধিকারীকে স্কুল থেকে বহিষ্কার করা হয়। অরিত্রীর বাবা-মাকে ডেকে নিয়ে তার সামনেই অপমান করা হয়েছিল বলেও অভিযোগ ওঠে। ওই ঘটনার পরই আত্মহত্যা করেন অরিত্রী। এরপর অরিত্রীকে আত্মহত্যার প্ররোচণার অভিযোগে মামলাও হয়। এ মামলা এখনো বিচারাধীন।

Logo-orginal