, রোববার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

admin

কিছুক্ষণ পর ঘোষণা করা হবে হলি আর্টিজান মামলার রায়

প্রকাশ: ২০১৯-১১-২৭ ১২:১১:৩৫ || আপডেট: ২০১৯-১১-২৭ ১২:১১:৩৫

Spread the love

ঢাকা: সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আর কিছুক্ষণ পরেই ঘোষণা করা হবে হলি আর্টিজান মামলার রায়। দেশের ইতিহাসে অনাকাঙ্ক্ষিত ও ঘৃণ্য এ সন্ত্রাসী হামলার বিচারের দিকে তাকিয়ে দেশ ও গোটা বিশ্ব। ন্যায়ের দণ্ড সমুন্নত রাখতে প্রস্তুত আদালত। আর রায়ের সবশেষ তথ্য প্রকাশ করতে প্রস্তুত দেশি-বিদেশি গণমাধ্যম।

বুধবার (২৭ নভেম্বর) দুপুরে এ হামলার রায় ঘোষণার দিন। ইতোমধ্যে সকাল ১০টা ২০ মিনিটে আদালত চত্বরে আনা হয়েছে মামলার আসামিদের।

এদিন ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমান মামলার রায় ঘোষণা করবেন। আদালত সূত্রে জানা যায়, আজকের দিনে মামলার কার্যক্রম সম্পর্কিত সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। একই সঙ্গে প্রস্তুত গণমাধ্যমকর্মীরা।

দেশের গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলোর পাশাপাশি বিদেশি গণমাধ্যমেরও ব্যাপক আগ্রহের কেন্দ্র এই রায়। রায় ঘোষণার সঙ্গে সম্পর্কিত সবশেষ তথ্য প্রকাশে একাধিক দল কাজ করছে প্রতিটি গণমাধ্যম থেকে।

মহানগর দায়রা জজ আদালতপেশাগত দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি মর্মান্তিক এ হামলার পেছনে যারা দায়ী তাদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি তাদেরও। দেশের একটি প্রথম সারির পত্রিকার ক্রাইম রিপোর্টার জনি রায়হান বলেন, আমরা পেশায় সাংবাদিক বা গণমাধ্যমকর্মী। পেশাগত দায়িত্ব থেকে এই রায় কাভার করা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তবে যে ঘটনার সূত্রপাতে আজকের এই রায়, সেই ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত, মর্মান্তিক ও ঘৃণ্য। পেশাগত পরিচয়ের বাইরেও এমন হামলার সঙ্গে যারা জড়িত তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি চাই।

এদিকে আদালত চত্বরে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। গণমাধ্যমকর্মী ছাড়া ব্যাগ নিয়ে কাউকে আদালত চত্বরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কোতোয়ালি জোনের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার সাইফুল আলম বলেন, রায় ঘিরে নাশকতার একটা আশঙ্কা তো থাকেই। তবে সবকিছু ছাপিয়ে আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। এই রায় পৃথিবীর সব অপরাধী ও যারা অপরাধপ্রবণ মানসিকতা পোষণ করে তাদের জন্য এক সতর্কতা। আমাদের পক্ষ থেকে সব ধরনের নিরাপত্তা প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সূত্রঃ বাংলা নিউজ ।

নিউজ ডেস্কঃ কাল ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ সাল, মহান বিজয় দিবস। ত্রিশ লাখ শহীদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে
কাশ্মীরের লাইন অব কন্ট্রোলে (এলওসি) পাকিস্তান-ভারতের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনায় দুই ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছে। এসময়
অশান্তি হবে জানা ছিল। কিন্তু এ ভাবে বিক্ষোভের আগুন স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে গোটা অসমে ছড়িয়ে যাবে
চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় রাত নামলেই বাড়ে বন্য হাতির আতঙ্ক,ঘুমহীন এলাকাবাসীর রাত কাটে আতংকিত অবস্থায়। অথচ নীরব
রাকিবউদ্দিন, বিনোদন ডেস্কঃ বেঁধে রাখা, সেতো বাঁধা নয়, সময়ের অনুভূতি ও চিন্তাগুলো ক্যামেরার ফ্রেমে বন্দি.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo-orginal